Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

শোচনীয় অবস্থা ইউক্রেনের, আত্মসমর্পণ করল ২৫৬ জন সেনা ! কোন দিকে ঘুরবে যুদ্ধের মোড় ?

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

মারিওপোলের আজভস্টলে ছিল ইউক্রেনীয় সেনাদের কাছে শেষ প্রতিরোধের দুর্গ। কিন্তু তা আর রক্ষা করা গেল না। ইউক্রেনের অবস্থা দিনের পর দিন শোচনীয় হয়ে উঠছে। রুশ সেনাদের কাছে আত্মসমর্পণ করল আজভস্টলের ইউক্রেনীয় সেনারা । প্রতিরোধের দুর্গ রক্ষা করা গেল না, পাশাপাশি এখন ডনবাস এলাকাও রুশ সেনাদের দখলে।

সম্প্রতি ইউক্রেনীয় সেনাবাহিনীর তরফ থেকে একটি ভিডিও প্রকাশ করা হয়েছে , যেখানে দেখতে পাওয়া যায় একটি বাসের মধ্যে বসে রয়েছেন বহু সৈনিক, যাঁরা আত্মসমর্পণ করেছেন। শুধু তাই নয়, তাঁদের মধ্যে রয়েছেন বহু আহত সৈনিক। কেউ স্ট্রেচারে শুয়ে রয়েছেন, আবার কেউ বসে রয়েছেন হুইল চেয়ারে। অনেকের শরীরের নানান জায়গায় ব্যান্ডেজ বাঁধা। রীতিমত যুদ্ধ বিধ্বস্ত সৈনিকদের সেই ভিডিও সামনে আসতেই ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

আজভস্টলে একটি স্টিল প্লান্টে আটকে ছিলেন প্রায় ২৫৬ জন ইউক্রেনীয় সেনা। সোমবার তাঁরা রুশ সেনাদের কাছে আত্মসমর্পণ করেছেন। অপরদিকে এই ঘটনায় উল্লসিত রাশিয়া। আত্মসমর্পণকারী সেনাদের মধ্যে গুরুতর জখম হয়েছেন প্রায় ৫৩ জন। আত্মসমর্পণকারী সেনাদের যুদ্ধবন্দি হিসেবে রুশ সেনারা নিয়ে যাবেন তাঁদের নিজস্ব নিয়ন্ত্রিত এলাকায় । জখমদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হবে। এই ঘটনা প্রসঙ্গে ইউক্রেনের উপ-প্রতিরক্ষামন্ত্রী হানা মালিয়া জানিয়েছে, ওই সেনাদের যুদ্ধবন্দী বিনিময় মাধ্যমে ফিরিয়ে আনা হবে , সেই অনুযায়ী চলছে পরিকল্পনা।

চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসের ২৪ তারিখে রাশিয়া ইউক্রেনের বিরুদ্ধে যে সামরিক অভিযানের সূচনা করেছিল , প্রায় আড়াই মাস হয়ে গেল এখনও পর্যন্ত তা অব্যাহত রয়েছে । বুচা কিংবা মারিওপোলের বহু এলাকা নরকে পরিণত হয়েছে। বিপর্যস্ত ইউক্রেনের বড় বড় শহরগুলি। রাশিয়ার থেকে ইউক্রেন ছোট্ট একটি রাষ্ট্র হলেও, এতদিন ধরে রুশ সেনাদের ঠেকিয়ে রেখেছে। কিন্তু সম্প্রতি একের পর এক সামনে আসছে আত্মসমর্পনের খবর। বহু পশ্চিমী দেশ পরোক্ষ কিংবা পরোক্ষভাবে ইউক্রেনের পাশে দাঁড়ালেও ইউক্রেনের বহু সাধারণ মানুষের জীবন অত্যন্ত শোচনীয়। লক্ষ্য লক্ষ্য মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছেন, বহু জায়গায় রুশ সেনারা চালিয়েছে নরসংহার, সেই তালিকা থেকে বাদ পড়েনি শিশুরাও।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories