Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

ওড়িশার নম্বর প্লেট লাগানোর ট্রাক, তল্লাশি চালাতেই চক্ষু চড়কগাছ এসটিএফের

।। প্রথম কলকাতা।।

অভিনব কায়দায় চলছিল গাঁজা পাচারের পরিকল্পনা। বাইরে থেকে দেখে বোঝার উপায় নেই যে ওই ট্রাকের মধ্যেই লুকিয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে গাঁজা । তবে তল্লাশি চালানোর পর রীতিমত চোখ কপালে উঠল এসটিএফের । ধরা পড়ল প্রায় ৩৫০ কেজি গাঁজা। ঘটনাটি দুর্গাপুর ব্যারেজ সংলগ্ন শ্যামপুরের । সেখানে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে অভিযান চালায় এসটিএফের একটি দল। ওড়িশার নম্বর প্লেট লাগানো একটি ট্রাক আটক করে তাঁরা। গাড়িটির গতি অত্যন্ত বেশি ছিল আর ওই গাড়ির মধ্যেই ওড়িশা থেকে নবদ্বীপে পাচার করা হচ্ছিল বিপুল পরিমাণে গাঁজা।

এস টি এফ এর ওই দল আগেই খবর পেয়েছিলেন যে বেআইনি পাচার করা হবে এই পথেই। সেইমতো চলছিল নাকা তল্লাশি । আর তারপর শ্যামপুরের কাছে ট্রাকটিকে আটক করা হয়। ট্রাকের পেছনে দেখা যায় বেশ কিছু জিনিস পত্র রয়েছে। তার নিচে কাঠের পাটাতন আর সেই কাঠের পাটাতন তুলতেই রীতিমতো চোখ কপালে উঠল এসটিএফ আধিকারিকদের । দেখা গেল সেই কাঠের পাটাতনের নিচে লোহার ব্লক করা রয়েছে। সেই ব্লকের মধ্যে রয়েছে বেশ কতকগুলি সাদা বস্তা।

সেখান থেকে প্রায় ২২ বস্তা গাঁজা উদ্ধার করা হয়। এরপর এসটিএফের আধিকারিক এবং কোকওভেন থানার পুলিশের যৌথ অভিযানে গ্রেফতার হয় ৬ জন। তাদের মধ্যে একজন নাদনঘাট এর বাসিন্দা বলে জানা যায়। আর বাকি পাঁচজন নবদ্বীপের বাসিন্দা। তাদের জেরা করতেই পুলিশ জানতে পারে যে ওড়িশার জলেশ্বর থেকে নবদ্বীপের নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল এই গাঁজা। তাদেরকে বুধবার আসানসোল আদালতে নিয়ে যাওয়া হবে বলে জানা যায়। এছাড়াও এই চক্রের সঙ্গে আর কারা জড়িত রয়েছে তা জানতে তদন্ত চালাচ্ছে পুলিশ।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories