Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

‘বিজেপিকে নিয়ে মাথা ঘামানোর পরিস্থিতি তৃণমূলের হয়নি’, তীব্র কটাক্ষ কুণালের

1 min read

।। প্রথম কলকাতা।।

গণমাধ্যমে বক্তব্য রাখলেন তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ(Kunal Ghosh )। তাঁর বক্তব্যে বঙ্গ রাজনীতির নানা দিক উঠে এলো। তিনি জানান, বাংলার সমস্যায় কান দেয় না বিজেপি। তাই সমস্যা মেটাতে মমতাকেই দরকার হয়। বিজেপি সাংসদদের কথাও শোনে না দল। অর্জুন সিংকে নিয়ে চলা একাধিক জল্পনা নিয়েও তিনি বক্তব্য রাখলেন। সেইসঙ্গে বিজেপির বিরুদ্ধে করলেন কটাক্ষ। আবার, রাজ্য পুলিশের ভূমিকার প্রশংসা করলেন তিনি।

তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষ জানালেন, “বাংলার সমস্যায় বিজেপি কান দেয় না। সমস্যা মেটাতে মমতাকেই দরকার হয়। বিজেপি সাংসদরা কোন কথা বললে, সেটা বিজেপি সরকার শোনে না। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি দিতে হয়। এটার উপর দাঁড়িয়ে মানুষ বাকিটা দেখতে পাবেন। অর্জুন সিং কেন বিজেপিতে গিয়েছিলেন? কেন তাঁর বিধানসভা এলাকায় সমস্তই তৃণমূল জিতে গেছে? কেন পুরভোটে ওখানে বিজেপি জেতে নি? কেন কারও কারও বিলম্বিত বোধোদয় হচ্ছে? এটা সম্পূর্ণ তাঁদের ব্যাপার। একজন বিজেপি সাংসদ কী করবেন? সে বিষয়ে কোন মন্তব্য করব না। সে দলের শীর্ষ নেতৃত্ব ঠিক করবেন। কাউকে নেওয়া হবে, কি হবে না? এটা বলার অধিকার দলের মুখপাত্রের থাকে না।

ঘর ওয়াপসি কি হতে পারে অর্জুন সিংয়ের? এ প্রসঙ্গে কুণাল ঘোষ জানান, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় পরিষ্কার বলে দিয়েছেন, যারা ফিরতে চাইছেন, তাঁদের ক্ষেত্রে দলের শীর্ষ নেতৃত্ব সবকিছু দেখে, তাঁদের ভূমিকা, তাঁদের রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট কী? সবকিছু দেখে সিদ্ধান্ত নেবে। এটুকু শুধু বলা যাচ্ছে, বিজেপিতে অনেকের একটু দমবন্ধ। বিজেপিতে থাকলে নাকি কাজ করা যাচ্ছে না। বিজেপিতে যারা গেছেন, তাঁরা সম্মান পাচ্ছেন না? বিজেপিতে গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব আছে। আদি বিজেপি বনাম তৎকাল বিজেপি। তাঁদের নিয়ে মাথা ঘামানোর পরিস্থিতি এখনো হয়নি তৃণমূলে।”

আনিস কাণ্ডে পুলিসের ভূমিকা নিয়ে উঠেছে নানা প্রশ্ন। এ প্রসঙ্গে কুণাল ঘোষ জানালেন, “এটা সম্পূর্ণ আদালতের বিচারাধীন বিষয়। আদালতের বিচারাধীন বিষয়ে কোন মন্তব্য করব না। তবে, এত বড় একটা সরকার। এত বড় একটি সিস্টেম। এত জন পুলিশ কর্মী। বহু ক্ষেত্রে দেখা যায় পুলিশ নিজেদের জীবন বিপন্ন করে মানুষকে বাঁচান। কোনো পরীক্ষার্থী আটকে গেলে নিয়ে যাচ্ছেন। আবার পুলিশের যদি কোনো ত্রুটি হয়ে যায়, সরকার সংবেদনশীল দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে যথাযথভাবে সেক্ষেত্রে পদক্ষেপ নিচ্ছে।”

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories