Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

শৌচকর্মের নামে ডেকে নিয়ে যান প্রতিবেশী, এক সপ্তাহ ধরে নিখোঁজ মালদার নাবালিকা

।। প্রথম কলকাতা।।

পরিবারসম প্রতিবেশীর ওপর ভরসা করেছিলেন মঞ্জু পাসমান। কিন্তু তাঁর পরিণাম যে এইরকম হবে তা ভাবতে পারেননি তিনি। মাঠে শৌচকর্ম করতে যাওয়ার নাম করে তাঁর নাবালিকা মেয়েকে সঙ্গে করে নিয়ে যায় প্রতিবেশী এক মহিলা। আর তারপর কেটে গিয়েছে এক সপ্তাহ । এখনও পর্যন্ত ওই নাবালিকা নিখোঁজ । তাঁর কোনো খোঁজ পায়নি পুলিশও । আর এই ঘটনায় অভিযোগ উঠেছে ওই প্রতিবেশী মহিলা এবং তাঁর স্বামীর বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে মালদা জেলার হরিশচন্দ্রপুরের পিপলা গ্রামে।

মঞ্জু পাসমান নামে ওই মহিলা জানান তাঁর ১৪ বছরের নাবালিকা মেয়ে বিগত ৮ দিন ধরে নিখোঁজ। ঘটনার দিন সন্ধ্যেবেলায় তাঁর প্রতিবেশী যশোদা ঋষি মাঠে শৌচকর্মে যাবেন বলে ওই নাবালিকাকে ডেকে নিয়ে গিয়েছিলেন । তারপর যশোদা ফিরে আসলেও তাঁর মেয়ে ফিরে আসেনি । ওই নাবালিকাকে অনেক খোঁজাখুঁজি করা হয় এলাকায় । কিন্তু তাকে পাওয়া যায় না । এই ঘটনার পর থেকে যশোদা এবং তাঁর স্বামী মথুর নিখোঁজ রয়েছে বলে জানা যায় । এই ঘটনার অভিযোগ দায়ের করা হয় হরিশ্চন্দ্রপুর থানায়।

অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ তদন্ত শুরু করে। জিজ্ঞাসাবাদ করতে আসে এলাকায় । কিন্তু অভিযুক্ত যশোদা এবং তাঁর স্বামী বর্তমানে পলাতক। মঞ্জু জানান, তাঁর মেয়ে নবম শ্রেণীর ছাত্রী । হোস্টেলে থেকে পড়াশোনা করত। তবে ছুটিতে বাড়িতে এসেছিল। আর তার পরেই এই ঘটনা । তাঁর অনুমান যশোদা এবং তাঁর স্বামী মেয়েকে অন্যত্র কোথাও পাচার করে দিয়েছে। তিনি অভিযুক্তদের যথোপযুক্ত শাস্তি দাবি করেন এবং যাতে তাঁর মেয়ে সুস্থ ভাবে তাঁর কাছে ফিরে আসে এই আবেদন জানান পুলিশের কাছে।

নাবালিকা অপহরণের ঘটনা প্রসঙ্গে এলাকার তৃণমূল নেতা তথা পঞ্চায়েত সদস্য দ্রোণাচার্য ব্যানার্জি বলেন, এই অপহরণের ঘটনা সম্পর্কে তিনি শুনেছেন এবং স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনকে আবেদন জানিয়েছেন যাতে যত দ্রুত সম্ভব তাঁরা যেন এই বিষয়ে সঠিক পদক্ষেপ গ্রহণ করেন। হরিশ্চন্দ্রপুর থানার আইসি সঞ্জয় কুমার দাস জানান, পরিবারের তরফ থেকে অপহরণের অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে । আর সেই অভিযোগের ভিত্তিতে খতিয়ে দেখা হচ্ছে সমস্ত তথ্য।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories