Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

বাবা-মাকে রাখার জন্য বড় বাড়ি নয়, বড় মনের প্রয়োজন ! জানাল সুপ্রিম কোর্ট

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

ভারতের বয়স্ক নাগরিকরা ট্র্যাজেডির মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে, এমনটাই জানাল সুপ্রিম কোর্ট। সম্প্রতি একটা পিটিশনের শুনানি করার সময় সুপ্রিম কোর্টের তরফ থেকে বলা হয়, আসলে বাবা মাকে নিজের রাখার জন্য বড় বাড়ির প্রয়োজন নেই, বড় মনের প্রয়োজন রয়েছে। বর্তমানে বয়স হলেই বাবা-মাকে অনেকেই বোঝা মনে করেন, আর যার কারণে অলিতে-গলিতে গজিয়ে ওঠে একটা করে বৃদ্ধাশ্রম। ৮৯ বছর বয়সী এক বয়স্ক মহিলা গুরুতর ডিমেনশিয়ায় ভুগছেন, অথচ তার হাতের ছাপ নিয়ে সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করেছে তারই ছেলে । এক্ষেত্রে সুপ্রিম কোর্ট পর্যবেক্ষণ করে জানায়, তার সন্তানের কাছে মায়ের থেকে সম্পত্তি বড় হয়ে উঠেছে।

ডিমেনশিয়া আক্রান্ত বয়স্ক মহিলা মৌখিক কিংবা শারীরিক ইঙ্গিত বোঝেন না। বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড় এবং সূর্য কান্তের বেঞ্চ বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করেন। বয়স্ক মহিলার বড় ছেলে বিহারের মতিহারিতে একটি রেজিস্ট্রার অফিসে অসুস্থ মাকে নিয়ে গিয়ে বুড়ো আঙুলের ছাপ নিয়ে প্রায় ২ কোটি টাকার সম্পত্তি বিক্রি করে দেন, অথচ তার বয়স্ক মা নিজে জানেন না তিনি ঠিকই করছেন । এমনকি তিনি স্বাচ্ছন্দে নড়াচড়া পর্যন্ত করতে পারেন না।

মে মাসের ১৩ তারিখে দায়ের করা বোনদের একটি পিটিশনে শুনানি করার সময় বেঞ্চ ওই ছেলের উদ্দেশ্যে জানায় ” মনে হয় আপনি তার সম্পত্তিতে বেশি আগ্রহী , এটা আমাদের দেশের প্রবীণ নাগরিকদের ট্র্যাজেডি। আপনি তাকে মতিহারি রেজিস্ট্রারের অফিসে নিয়ে গিয়েছিলেন তার বুড়ো আঙুলের ছাপ নিতে। যদিও তিনি গুরুতর ডিমেনশিয়ায় ভুগছেন এবং কিছুই বলতে পারছেন না” ।

আদালতে ওই বয়স্ক মহিলা ওরফে বিদেহী সিংহের দুই মেয়ে পুষ্প তিওয়ারি এবং গায়ত্রী কুমার জানান তারা ২০১৯ সাল পর্যন্ত মায়ের দেখভাল করেছিলেন । এমনকি তারা এখনো আবার মায়ের যত্ন নেওয়ার জন্য প্রস্তুত , চিকিৎসকদের পরামর্শ অনুযায়ী মাকে নিজেদের কাছে রাখতে চান। এতদিন তাদের ভাইয়ের কাছে মা ছিলেন অথচ মায়ের সাথে দেখা করার অনুমতি পাননি তারা। মাঝে একবার দেখা করার অনুমতি পান তাও পুলিশের উপস্থিতিতে। এই বিষয়ে তাদের ভাই কৃষ্ণকুমার সিংহের আইনজীবী জানান তাদের বোনের নয়ডায় মাত্র দুই কক্ষের একটি ফ্ল্যাট রয়েছে , সেখানে মায়ের থাকার জায়গার অভাব হতে পারে। এই জবাবে বেঞ্চ জানায় ” আপনার বাড়ি কত বড় তা বিবেচ্য নয়, তবে আপনার হৃদয় কত বড় তা গুরুত্বপূর্ণ “। পরবর্তী আদেশ না হওয়া পর্যন্ত আপাতত বিদেহী সিংহের কোনো স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তির ক্ষেত্রে কোনো লেনদেন করা যাবে না , এমনটাই নির্দেশ দিয়েছে বেঞ্চ।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories