Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

মেট্রো লাইন অপরিকল্পিত ভাবে ঘুরিয়েছেন মমতা! দিলীপের মতে সব সমস্যা সেখানেই

1 min read

।। প্রথম কলকাতা।।

বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh) রবিবার সকালে নিউটাউন ইকোপার্কে আসেন প্রাতঃভ্রমণের জন্য । আর সেখানেই সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে আবারও একবার শাসক দলকে এক হাত নিলেন তিনি। রাজ্যের বিভিন্ন ক্ষেত্রে শাসকদলের দুর্নীতির কথা তুলে মুখ্যমন্ত্রীকে বিঁধতে পিছপা হলেন না দিলীপ ঘোষ। বউবাজারে মেট্রো বিপর্যয়ের ফলে যে পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে সে ক্ষেত্রে মেট্রোরেল এর ভূমিকা নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করতে দেখা গিয়েছিল কলকাতা পৌরসভার মেয়র ফিরহাদ হাকিমকে। অবিলম্বে মেট্রোর ক্ষমা চাওয়া উচিত বলে দাবি করেছিলেন তিনি।

সেই প্রসঙ্গে পাল্টা ফিরহাদ হাকিমকে(Firhad Hakim) নিজেদের দোষ স্বীকার করার নির্দেশ দেন তিনি । তাঁর কথায়, ‘ মেয়রকে আগে দোষ স্বীকার করতে বলুন। ওনার নেত্রী মেট্রো লাইনকে ঘুরিয়েছেন অপরিকল্পিতভাবে । তার ফলে বারবার সেখানে সমস্যা হচ্ছে । গায়ের জোরে রাজনীতি করতে গিয়ে সমস্ত কিছুকে উল্টোপাল্টা করে দেবেন আর সাধারন মানুষকে তার জন্য ভুগতে হচ্ছে। ওনাদের আগে লোকের কাছে ক্ষমা চাওয়া উচিত। কেন এই ধরনের রাজনীতি করেন তাঁরা ? কলকাতায় যে জল বের করতে পারে না , বিদ্যুৎ দিতে পারে না তাঁর এই ধরনের বড় বড় কথা বলা সাজে না’।

আরও পড়ুন : ২৪ এর লক্ষ্যে তৈরি তৃণমূল, ডিজিটালে গোটা দেশে পৌঁছাবে ‘ইন্ডিয়া ওয়ান্টস মমতা দি’ স্লোগান

গতকাল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (Amit Shah) হায়দ্রাবাদে একটি সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে বলেন যে, তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী সেখানে বাংলা বানানোর চেষ্টা করছেন। তারপর তৃণমূলের তরফ থেকে বলা হয় ইচ্ছাকৃতভাবে বাংলাকে বদনাম করার জন্য এই ধরনের মন্তব্য করা হচ্ছে। অমিত শাহের ওই বক্তব্যের স্বপক্ষে দিলীপ ঘোষকে বলতে শোনা যায়, ‘ আটজন মহিলা দুজন শিশুকে পুড়িয়ে মারা হয় ঘরের ভেতরে সেখানে বদনাম হয় না। ১৩ বছরের মেয়েকে ধর্ষণ করে খুন করা হচ্ছে। পাড়ায় পাড়ায় এই রকম ঘটনা প্রতিদিনই ঘটছে। তাতে বাংলার বদনাম হয়নি কিন্তু অমিত শাহ বললে বাংলার বদনাম হয়ে যাবে! ‘

পাশাপাশি তিনি জানান, ‘ সারা দেশের জানা দরকার রয়েছে পশ্চিমবঙ্গে কীভাবে রাজনীতি চলছে। এখানে গণতন্ত্র কী অবস্থায় রয়েছে । তেলেঙ্গানায় ইদানিং যেহেতু আমাদের পার্টি শক্তিশালী হয়েছে, হায়দ্রাবাদ কর্পোরেশন নির্বাচনে ভালো রেজাল্ট করেছে, তারপর থেকেই বিজেপির উপর অত্যাচার শুরু হয়ে গিয়েছে। সেখানে সঞ্জয় কুমার যিনি সেখানকার বিজেপির প্রেসিডেন্ট তাঁর উপরেও বর্তমানে অত্যাচার করা হচ্ছে। তাই স্বাভাবিকভাবেই এখানকার পরিস্থিতির সাথে তুলনা করেছেন উনি’।

গতকাল ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের ইস্তফা নিয়ে রাজনৈতিক মহলে ব্যাপক শোরগোল দেখা দিয়েছিল। সেই প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষকে বলতে শোনা যায়, ‘ অনেক রাজ্যেই হয়। আমাদের রাজ্যে কম হয়। কিন্তু যেখানে প্রয়োজন সেখানে করতে হয় সাংগঠনিক ক্ষেত্রেও এবং প্রশাসনিক ক্ষেত্রেও । পার্টি যেটা ঠিক মনে করেছে, সেটাই করেছে’।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories