Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

স্বামী কুঁড়ে , রেগে গিয়ে খুন করলেন স্ত্রী ! দেহ টুকরো টুকরো করে কেটে সিদ্ধ বসালেন

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

সংসারে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে ঝামেলা কিংবা সামান্য একটু বিবাদ অত্যন্ত স্বাভাবিক ব্যাপার । স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্ক পৃথিবীতে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি সম্পর্ক। বিয়ের সময় দুজন দুজনকে প্রতিশ্রুতি দেন, একে অপরের সুখে-দুঃখে পাশে থাকার জন্য। বর্তমানে বহু মেয়ে রয়েছেন যারা অফিস এবং বাড়ি, দুটি জায়গা সমানভাবে সামলান। এমনই এক মহিলা এই অবস্থায় অত্যন্ত বিরক্ত হয়ে স্বামীর সঙ্গে ঝগড়া বাঁধিয়ে দেন। তারপর সেই বিবাদ পৌঁছায় চরমে। অবশেষে নিজের স্বামীকে খুন করে সেই দেহ টুকরো টুকরো করে কেটে প্যানে সিদ্ধ করেন। এই ঘটনাটি শুনে বহু মানুষের গা কেঁপে উঠেছে। স্বাভাবিকভাবেই সারা বিশ্বজুড়ে ছড়িয়েছে চাঞ্চল্য।

এই ভয়ঙ্কর ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ-পূর্ব ইউরোপের দেশ সার্বিয়ার জারানজানিনের। মে মাসের ১০ তারিখে রাত ৯টায় তেরেসা নামক এক মহিলা এমন কাণ্ড ঘটিয়েছেন। ওই মহিলার মেয়ের জবানবন্দিতে অভিযুক্ত মহিলাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তদন্তে জানা যায় ওই মহিলা যখন তার স্বামীকে খুন করেন সেখানে উপস্থিত ছিলেন তাদের মেয়ে।

রাতের খাবার একা হাতের রান্না করার সময় ওই মহিলা অত্যন্ত বিরক্ত হয়ে গিয়েছিলেন। তিনি চাইছিলেন ঘরের কাজে স্বামী একটু হলেও সাহায্য করুক। তিনি এতটাই বিরক্ত হয়ে যান যে, তার স্বামীকে হত্যা করেন। স্বামীকে হত্যা করেও তার রাগ কমেনি, উপরন্তু স্বামীর মৃতদেহ টুকরো টুকরো করে কেটে একটি প্যানে সিদ্ধ করতে বসান। এই ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী হিসেবে ওই মহিলার মেয়ে জানান তিনি নিজের চোখে দেখেছেন তার মা তার বাবাকে কীভাবে হত্যা করেছে। তিনি জানান হত্যার সময় তার বাবা মদ্যপ অবস্থায় ছিলেন, তার সত্ত্বেও তিনি জীবন বাঁচাতে পালানোর চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু কোনো লাভ হয়নি, সেই সময় তার মা ওই ব্যক্তিকে ক্রমাগত ছুরি দিয়ে আঘাত করেন। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে অভিযুক্ত মহিলা জানান তিনি তার স্বামীর অলসতায় অত্যন্ত বিরক্ত ছিলেন । এর আগেও নাকি তিনি তার স্বামীকে হত্যার চেষ্টা করেছিলেন , তখন তার পরিকল্পনা সফল হয়নি।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories