Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

ভোট-পরবর্তী হিংসায় খুন অভিজিৎ, বিচারের দাবিতে আমরণ অনশনে বসলেন বিজেপি নেতার দাদা

1 min read

।। প্রথম কলকাতা।।

একুশের নির্বাচনের পর ভোট-পরবর্তী রাজনৈতিক হিংসায় হত্যা করা হয়েছিল বেলেঘাটার বিজেপি নেতা অভিজিৎ সরকার কে। অভিজিৎ সরকারের পরিবারের তরফ থেকে অভিযোগ উঠেছিল তাকে পিটিয়ে খুন করেছে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব । বাড়ির কাছেই ওই বিজেপি নেতাকে খুন করা হয়েছিল । তৃণমূল নেতা পরেশ পাল এবং স্বপন সমাদ্দারের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছিলেন অভিজিৎ এর পরিবার। এই ঘটনার তদন্তভার দেওয়া হয়েছিল সিবিআইয়ের হাতে । তবে এখনও পর্যন্ত এই ঘটনার মূল অভিযুক্ত পরেশ পাল এবং স্বপন সমাদ্দারকে গ্রেফতার করা হয়নি, এমনকি জেরা করার জন্য তাদেরকে ডাকা হয়নি।

কেন এখনও পর্যন্ত তাদের বিরুদ্ধে কোনো রকম পদক্ষেপ গ্রহণ করছে না সিবিআই ,তাঁর উত্তর জানতেই আজ অভিজিৎ সরকারের দাদা বিশ্বজিৎ সরকার সিজিও কমপ্লেক্স এর সামনে প্ল্যাকার্ড হাতে আমরণ অনশনে বসলেন। তাঁর দাবি ,অবিলম্বে অভিযুক্ত পরেশ পাল এবং স্বপন সমাদ্দারের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ গ্রহণ করা হোক। তাদেরকে গ্রেফতার করা হোক। তাঁর দাবি, অভিজিৎ সরকারের মৃত্যুকালীন বয়ান পর্যন্ত রয়েছে সিবিআইয়ের হাতে। সেখানে পরেশ পাল এবং স্বপন সমাদ্দারের নাম উল্লেখ করা হয়েছে । তার পরেও কেন এখনও পর্যন্ত তাদেরকে তলব করা হয়নি।

তাদের বিরুদ্ধে পরবর্তী পদক্ষেপ কী হতে চলেছে সিবিআইয়ের, সেই উত্তর খুঁজতেই আজ আমরণ অনশনে বসলেন বিজেপি নেতা অভিজিৎ সরকারের দাদা বিশ্বজিৎ সরকার । জানা যায়, অভিজিৎ সরকারসহ তাঁর পরিবারকেও বেধড়ক মারধর করা হয়েছিল পরেশ পাল এবং স্বপন সমাদ্দারের নেতৃত্বে। ওই ঘটনার পর গুরুতর জখম অবস্থায় অভিজিৎ সরকা কে নিয়ে আসা হয়েছিল নীলরতন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে । কিন্তু তারপর মৃত্যু হয় অভিজিৎ এর। একুশের বিধানসভা নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা হওয়ার পরেই হামলা করা হয় অভিজিৎ এর উপর। অভিজিৎ এর দাদা বিশ্বজিৎ সরকারের অভিযোগ, একজন তৃণমূল নেতা তাঁর ভাইকে খুন করেছে এবং অন্যজন খুন করিয়েছে। কিন্তু এখনও পর্যন্ত সেই অভিযুক্তদের কোন শাস্তি হয়নি। আর যতক্ষণ না পর্যন্ত তাদের বিরুদ্ধে পরবর্তী পদক্ষেপ কী হতে চলেছে তা জানতে পারছেন তিনি , ততক্ষণ আমরণ অনশন চলবে তাঁর।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories