Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

স্ত্রীকে আত্মহত্যায় প্ররোচনা, গ্রেফতার স্বামী

1 min read

|| প্রথম কলকাতা ||

বসিরহাট সন্দেশখালী থানার বড়ো তুষখালি গ্রামে স্ত্রীকে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার করা হলো পেশায় শিক্ষক স্বামীকে। পেশায় পার্শ্বশিক্ষক সে। অভিযুক্তের নাম ভবতোষ। ভবতোষের স্ত্রী ভবানী সর্দারের (৩৫) সাথে দীর্ঘদিন ধরে চলছিল দাম্পত্য কলহ। স্থানীয় সূত্রে খবর, ঝামেলা এতোই বেড়ে যেতো যে স্ত্রীর গায়ে হাত তুলতেন ভবতোষ। এরই মধ্যে বৃহস্পতিবার ভবানী আত্মহত্যার চেষ্টা করে। আশংকাজনক অবস্থায় তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। শুক্রবার সকালে মৃত্যু হয় তাঁর।

এই পুরো ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়ায়। এরপরেই শুক্রবার জামাইয়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন ভবানী সর্দারের বাড়ির লোক। এই অভিযোগের ভিত্তিতেই শুক্রবার গ্রেফতার করা হয় ভবতোষ কে। পরিবার সূত্রে খবর, ৭ বছরের বিবাহিত জীবন তাঁদের। দুই মেয়ে ও এক ছেলে আছে। কিন্তু মাঝে মাঝে চরম অশান্তির জেরেই তা সহ্য করতে না পেরে ভবানী এই পদক্ষেপ নেন বলে তাঁরা জানিয়েছেন।

দাম্পত্য কলহের প্রকটতা এমন জায়গায় পৌছায় যে সালিশি সভা অবধি তা পৌছায়। কিন্তু তাতেও কোনো লাভ হয়নি। স্ত্রীর ওপর মানসিক ও শারীরিক নির্যাতন চলতেই থাকে। বৃহস্পতিবার নিজ বাস ভবনে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করার চেষ্টা করেন ভবানী। গুরুতর অবস্থায় তাঁকে সন্দেশখালী গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে ৭-৮ ঘন্টা মৃত্যুর সঙ্গে লড়াইয়ে তাঁর পরাজয় হয়। ভবানীর ভাই এরপরেই জামাইবাবুর নামে অভিযোগ করেন। যদিও ভবতোষের পরিবার এই বিষয়ে কিছু বলেনি। এই পুরো ঘটনায় অন্য কোনো কারণ আছে কিনা তা খতিয়ে দেখছে সন্দেশখালী থানার পুলিশ।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories