Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

নদিয়ায় নাবালিকার রহস্য মৃত্যু, গণধর্ষণের পর খুন! অভিযোগ আত্মীয়র বিরুদ্ধে

।। প্রথম কলকাতা।।

চড়ক পুজো উপলক্ষে পাশের গ্রামে দিদির বাড়িতে বেড়াতে গিয়েছিল নবম শ্রেণির এক ছাত্রী । একদিন পর বাড়িতে ফিরে আসার কথা ছিল কিন্তু ওই নাবালিকার বাবাকে ফোন করে জানানো হয় সে আরও একদিন পরে বাড়িতে ফিরবে। কিন্তু সেই দিনেও বাড়িতে না ফেরায় দেশ সন্দেহ হয় ওই নাবালিকার বাবার। তিনি পৌঁছে যান ওই আত্মীয়র বাড়িতে। তারপর গিয়ে সেখানে তিনি জানতে পারেন যে তাঁর মেয়ে আত্মহত্যা করেছে।

তবে ঘটনাটি যে আত্মহত্যা নয় সে বিষয়ে নিশ্চিত ছিলেন নাবালিকার বাবা। তাই তিনি অভিযোগ দায়ের করেন থানায় । ঘটনাটি ঘটে নদিয়ার ধানতলা এলাকায়।জানা যায়, ওই নাবালিকা চড়ক পুজো উপলক্ষে পাশের গ্রামে তাঁর দিদির বাড়িতে এসেছিল । ওই আত্মীয়র তরফ থেকে জানানো হয় যে সে সুস্থ রয়েছে কিন্তু ফিরবে কয়েকদিন পরে।

অন্যদিকে যেদিন ওই নাবালিকার বাবা আত্মীয়ের বাড়িতে গিয়ে উপস্থিত হয় তার আগেই সন্ধ্যাবেলায় অ্যাম্বুলেন্সে করে ওই নাবালিকাকে রানাঘাট হাসপাতালে পাঠিয়ে দেয় তাঁরা। আত্মীয়রা তাঁর বাবাকে জানায় যে, ঘরের সিলিং ফ্যানের সঙ্গে দড়ি ঝুলিয়ে আত্মহত্যা করেছে সে। সন্দেহ না হওয়ায় ধানতলা এলাকায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন তিনি। ইতিমধ্যেই মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। ওই নাবালিকার বাবার অভিযোগ তাঁর আত্মীয়রা নাবালিকার ধর্ষণ করে আর তারপর তাকে খুন করা হয়।

এই ঘটনায় নাবালিকার বাবা ৪ জনের নাম উল্লেখ করেন এবং ধর্ষণের অভিযোগ দায়ের করেন ফের ধানতলা থানা তে । শনিবার এই ঘটনার অনুসন্ধানে ধানতলা এলাকায় ওই আত্মীয়র বাড়িতে এসে উপস্থিত হয় পুলিশ সুপার সায়ক দাস এবং অতিরিক্ত পুলিশ সুপার। জানা যায়, অভিযুক্ত চারজন বাসুদেব সন্ন্যাসী, মলয় কুমার সন্ন্যাসী, সুপর্ণা মৈত্র এবং তিথি মণ্ডলকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদের জেরা করা হবে বলে জানা যায় পুলিশ সূত্রে।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories