Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

মাটিয়া কাণ্ডে লালবাজারে তলব সিআই সহ ৩ পুলিশ আধিকারিককে

।। প্রথম কলকাতা।।

ইতিমধ্যেই সাম্প্রতিক ঘটে যাওয়া বেশ কয়েকটি ধর্ষণকাণ্ডের তদন্তভার দেওয়া হয়েছে পুলিশের স্পেশাল কমিশনার দময়ন্তী সেনকে। তাঁর নজরদারিতে মালদার ইংরেজবাজার, মাটিয়া, বাঁশদ্রোণী, দেগঙ্গার মতো ধর্ষণকাণ্ড গুলির তদন্ত হবে বলে জানা গিয়েছে। ইতিমধ্যেই ইংরেজবাজার নাবালিকা ধর্ষণ কাণ্ডে আইসি সহ তিন পুলিশ আধিকারিককে লালবাজারে তলব করা হয়েছে শনিবার। পাশাপাশি জানা গেল এদিন মাটিয়া ধর্ষণকাণ্ডেও বসিরহাট জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সৌতম ব্যানার্জি ,তদন্তকারী অফিসার তাপস ঘোষ এবঁ তিতাস কুমার মিত্রকে তলব করা হল লালবাজারে।

মূলত মাটিয়া ধর্ষণকাণ্ডের তদন্ত কতদূর এগিয়েছে সেই বিষয়ে আলোচনা করতেই তাদেরকে ডেকে পাঠিয়েছেন দময়ন্তী সেন এবং উচ্চপদস্থ আধিকারিকরা। গত ২৩ শে মার্চ মাটিয়ার এক নাবালিকা নিখোঁজ হয়ে যায় । তার পরদিন অর্থাৎ ২৪শে মার্চ বিবেকনগর কুলতলা ব্রিজের কাছে সকালবেলায় তাঁর রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার করা হয় । এই ঘটনার তদন্তে জানা যায় যে ওই নাবালিকার নিজের পিসি রোজিনা এবং তাঁর প্রেমিক শহর আলি সরদার ওরফে সাগর এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত। মোবাইল দেওয়ার নাম করে ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করা হয়েছিল বলে জানা যায়। যদিও দু’জনকে গ্রেফতার করে মাটিয়া থানার পুলিশ।

তাদেরকে প্রথমেই আদালতে তরফ থেকে ৬ দিনের পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হয় ।আর তারপর ৫ই এপ্রিল তাদেরকে ফের আদালতে তুলে ১৪ দিনের হেফাজত এর নির্দেশ দেয় বসিরহাট মহকুমা আদালত। বর্তমানে তাঁরা জেল হেফাজতে রয়েছে বলেই জানা যায়। একের পর এক ধর্ষণ কাণ্ড প্রকাশ্যে আসায় রীতিমতো শোরগোল পড়ে গিয়েছে রাজ্যে। এমনকি এই ধর্ষণকাণ্ড গুলির মধ্যে একটি ঘটনায় মুখ্যমন্ত্রীর প্রতিক্রিয়া ব্যাপক সমালোচনার মুখে ফেলেছিল তাকে। তবে এই ধর্ষণকাণ্ডের ঘটনাগুলি বর্তমানে তদন্তের অধীনে রয়েছে।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories