Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

‘ভেবেছিলাম হয়তো সুব্রত মুখার্জির রেকর্ডটা ভাঙ্গবেন’, বাবুল প্রসঙ্গে মন্তব্য দিলীপের

1 min read

।। প্রথম কলকাতা।।

বর্তমানে বালিগঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্র এবং আসানসোল লোকসভা কেন্দ্রে চলছে উপ নির্বাচনের ভোট গণনা। তবে ভোট গণনা শুরু হবার আগেই প্রাতঃভ্রমণে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি দিলীপ ঘোষকে বাবুল সুপ্রিয় প্রসঙ্গে মন্তব্য করতে শোনা গিয়েছিল। বাবুল সুপ্রিয় ফুল বদলে তৃণমূলের টিকিট নিয়ে দাঁড়িয়েছেন বালিগঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রে। তাঁর প্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়ে দিলীপ ঘোষ বলেন, ” ভেবেছিলাম হয়তো সুব্রত মুখার্জির রেকর্ডটা উনি ভাঙবেন । কিন্তু মানুষ তাকে প্রার্থী হিসেবে স্বীকারই করেনি। তার জন্য ভোট দিতে চায়নি”

সুব্রত মুখার্জি মৃত্যুর পর ফের বালিগঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচন হয়েছে গত ১২ ই ফেব্রুয়ারি। যেখানে গত বিধানসভা নির্বাচনের ৬০ শতাংশ ভোট পড়েছিল।সেখানে এবার উপনির্বাচনে ভোট পড়েছে ৪০ শতাংশের কাছাকাছি । সেবার বিধানসভা নির্বাচনে প্রায় ৬০ হাজার ভোটে জিতে ছিলেন সুব্রত মুখোপাধ্যায়।এবার সেই কেন্দ্রের দাঁড়িয়েছেন বাবুল সুপ্রিয়। দিলীপ ঘোষ আরও বলেন, ” প্রথমবার কি উনি ভোট লড়ছেন নাকি? প্রত্যেকবার এপ্রিল-মে মাসে ভোট হয় আর ৮০ পার্সেন্ট এর বেশি ভোট হয় পশ্চিমবাংলায়। সেখানে ৪০% ভোট হচ্ছে। তার মানে ওনাকে লোকেরা পছন্দ করছেন না”।

দিলীপ ঘোষ এর মতে ভোট দেওয়ার মতন গণতান্ত্রিক পরিস্থিতি বর্তমানে নেই। যার কারণে সাধারণ মানুষ ভোটদান থেকে বিরত থাকছেন। আর তার উপরে বালিগঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রে তৃণমূল প্রার্থী হিসেবে বাবুল সুপ্রিয় কে মেনে নিতে পারেননি তাঁরা । যার কারণে তাকে ভোট দেননি সাধারণ মানুষ। তাঁর দাবি বালিগঞ্জে ভোটদানের হার থেকে স্পষ্ট বোঝা যায় যে এখানকার মানুষ বাবুল সুপ্রিয়কে সরাসরি প্রত্যাখ্যান করেছে। বাবুল সুপ্রিয় দলবদল করে তৃণমূলের টিকিট নিয়ে বালিগঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রের প্রার্থী হিসেবে দাঁড়িয়ে ছিলেন। তবে তাঁর বিরুদ্ধে দলের তরফ থেকেই নো ভোট টু বাবুল স্লোগানে প্রচার চলেছিল । কাজেই উপনির্বাচনে বালিগঞ্জে ভোটদানের হার এত কম হওয়ার পেছনে আরও একটি কারণ হিসেবে এই প্রচারকেই মনে করছে রাজনৈতিক মহলের একাংশ।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories