Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

বিমানবন্দর বন্ধ শিলিগুড়িতে, ঝোঁপ বুঝে কোপ মারছে বেসরকারী বাসগুলি

।। প্রথম কলকাতা ।।

সম্প্রতি শিলিগুড়িতে বন্ধ রয়েছে বিমানবন্দর। বাগডোগরা বিমানবন্দরে চলছে রানওয়ে সংস্কারের কাজ। বিমান পরিষেবা বন্ধ থাকার কারণে সমস্যায় পড়েছেন বহু মানুষ। ট্রেনের সংরক্ষিত আসনের টিকিট পাওয়া অত্যন্ত কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে। যার ফলে নির্ভর করতে হচ্ছে বাসের উপরে। আর সুযোগ বুঝে বাস ভাড়া বিপুল হারে বাড়াচ্ছে বেসরকারি বাসগুলি। যার মাসুল গুনতে বাধ্য হচ্ছেন সাধারণ মানুষ।

সাধারণ নন এসি বাসে যারা যাতায়াত করছেন, তাঁদের সমস্যা কম। কারণ, বাসের সংখ্যা প্রয়োজনের তুলনায় কম থাকলেও অতিরিক্ত মাশুল তাদের গুনতে হচ্ছে না। কিন্তু আরামপ্রিয় বাঙ্গালীদের পছন্দের বাস হলো এসি ভলভো বাস বা এসি ভলভো স্লিপার বাস। যার ভাড়া আকাশছোঁয়া হয়ে গেছে। উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণ সংস্থা এসি ভলভো চালালেও তার সংখ্যা প্রয়োজনের তুলনায় ন্যূনতম। তাই বেসরকারি ভলভো বাসের ওপরেই নির্ভর করতে হচ্ছে মানুষকে। যার পুরো ফায়দা তুলছে বেসরকারি বাসগুলি।

বেসরকারি এসি ভলভো বাসের চেয়ারের ক্ষেত্রে সাধারণত ভাড়া থাকে ১১০০ টাকা, এখন কাউন্টার থেকে কাটলে এই ভাড়া হয়ে দাঁড়িয়েছে ১৮০০ টাকা, কিন্তু অনলাইনে এই ভাড়া হলো ২৫০০ টাকা। এসি ভলভো স্লিপার বাসের ক্ষেত্রে সাধারণত ভাড়া হলো ১৪০০ টাকা, যদি কাউন্টার থেকে টিকিট কাটা যায় তবে সেই ভাড়া হয়ে দাঁড়িয়েছে ২০০০ থেকে ২২০০ টাকা। কিন্তু অনলাইনে কাটতে গেলে তা দাঁড়াচ্ছে ৩৭০০ থেকে ৫০০০ টাকা পর্যন্ত, যার কোনো উর্ধ্বসীমা নেই।

ফলত, সাধারণ মানুষকে পড়তে হচ্ছে সমস্যায়। বিশেষত, যারা বিমানে যাতায়াত করেন, তাঁদের বেড়েছে সমস্যা। আবার অসুস্থ মানুষ,যারা চিকিৎসার প্রয়োজনে দূরযাত্রা করছেন, তাঁদেরও নির্ভরতার স্থল হলো এসি ভলভো বাস গুলি। যার ফলে চড়া দামে টিকিট কিনতে বাধ্য হচ্ছেন অনেকে। আর ব্যস্ততার কারণে কাউন্টারে গিয়ে টিকিট কাটা অনেকের পক্ষেই অসম্ভব হয়ে পড়ছে। যে কারণে অনলাইনে টিকিট কাটার দিকেই ঝোঁক, আর ঝোঁপ বুঝে কোপ মারছে বেসরকারি সংস্থার বাসগুলি।

এ প্রসঙ্গে বেসরকারি সংস্থার এক প্রতিনিধি বলেছেন যে, একটা সময়ে এসি ভলভো বাস ফাঁকাও নিয়ে যেতে হয়েছে, এখন যেহেতু চাহিদা তুঙ্গে, তাই ক্ষতি পুষিয়ে নিতে পারছেন। চাহিদা থাকার কারণে ভাড়া বাড়লেও মানুষ টিকিট কাটছেন। অপর এক প্রতিনিধি জানালেন, যারা বিমানে যাতায়াত করে থাকেন, তাঁরা এসি ভলভো স্লিপার বেছে নিচ্ছেন। বিমানের মতো ভাড়া দিয়ে যাতায়াত করতেও বিশেষ আপত্তি করছেন না।

দার্জিলিংয়ের বাসিন্দা এক মহিলা চিকিৎসা করাবার জন্য গিয়েছিলেন বেঙ্গালুরু। বিমানে তিনি কলকাতা ফিরেছেন। কিন্তু কলকাতা থেকে শিলিগুড়ি বিমান পরিষেবা না থাকায়, বাধ্য হয়ে অনেক বেশি টাকা দিয়ে এসি স্লিপার ভলভো বাসের টিকিট কেটেছেন। কারণ, হাজার চেষ্টা করেও ট্রেনের কোন সংরক্ষিত কামরার টিকিট তিনি পাননি।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories