Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

তরুনীর রহস্য মৃত্যু ডায়মন্ড হারবারে, হোটেল রুম থেকে অচৈতন্য অবস্থায় উদ্ধার ঠাকুমা

।। প্রথম কলকাতা।।

মেয়ের মন ভালো করতে বাবা এবং ঠাকুমা তাকে নিয়ে এসেছিল দক্ষিণ ২৪ পরগনার ডায়মন্ড হারবারে। সেখানেই এক হোটেলে উঠেছিলেন তাঁরা তিনজনে। কিন্তু অত্যন্ত রহস্যজনকভাবে ওই হোটেলের রুম থেকে তরুণীর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয় । আর সেই ঘর থেকে উদ্ধার হয় তার ঠাকুরমার চৈতন্য দেহ।ঘটনার পর যদিও তরুনীর বাবার কোনো খোঁজ পাওয়া যায়নি। কী কারনে এই মৃত্যু তা নিয়ে বেশ ধোঁয়াশায় পুলিশ। তবে পুলিশের প্রাথমিক অনুমান এই ঘটনা আত্মহত্যার।

গত বুধবার রাতে উত্তর ২৪ পরগনার বাসিন্দা সোহিনী আইচের সঙ্গে তার পরিবারের সদস্যদের বচসা হয়। যার জেরে নিজের মোবাইল ফোনটি পর্যন্ত রাগে ভেঙ্গে ফেলেছিলেন ওই তরুণী । তাই তার মন ভালো করতে তাকে ঘুরতে নিয়ে আসা হয় ডায়মন্ড হারবারে। বৃহস্পতিবার সকাল সাতটা নাগাদ এখানে এসে পৌঁছান সোহিনী ,তার বাবা ধীমান আইচ এবং ঠাকুমা আভা দেবী। তারা ডায়মন্ড হারবারে স্কাইলার্ক হোটেলে এসে ওঠেন। তারপর কিছুক্ষণের জন্য ধীমান বাবু হোটেল থেকে বেরিয়ে যান।

সকাল এগারোটা নাগাদ হোটেলের কর্মীরা খাবার দিতে ওই রুমে গিয়ে পৌঁছায় । কিন্তু সেখানে গিয়ে তারা দেখে সোহিনী এবং তার ঠাকুরমা অচৈতন্য অবস্থায় পড়ে রয়েছে। তড়িঘড়ি তাদেরকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায় হোটেলের কর্মীরাই। তবে সেখানে চিকিৎসকরা সোহিনীকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। বর্তমানে তার ঠাকুরমা গুরুতর অসুস্থ বলে জানা গিয়েছে । তিনি এখনও পর্যন্ত চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এই ঘটনায় তদন্তে নামে পুলিশ। তাদের হোটেল রুম থেকে উচ্চক্ষমতাসম্পন্ন ঘুমের ওষুধের গুঁড়ো পাওয়া যায়। পুলিশের অনুমান সোহিনী আত্মঘাতী হয়েছে। তবে তার ঠাকুমা এই সিদ্ধান্তে তার সাথ দিয়েছিলেন কিনা সে বিষয়ে এখনও পর্যন্ত কিছু জানা যায়নি। সোহিনীর বাবা ধীমান আইচের খোঁজ চালাচ্ছে পুলিশ।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories