Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

বড় খবর: অবশেষে সম্পন্ন হল বিয়ে, চৈত্রের শেষ বেলায় সাঁতপাকে বাঁধা পড়লেন রণবীর-আলিয়া

1 min read

।।প্রথম কলকাতা।।

অবশেষে অফিসিয়ালি স্বামী-স্ত্রী হলেন রণবীর-আলিয়া। চৈত্রের শেষ বেলায় অগ্নি সাক্ষী রেখে হল চার হাত এক। রণবীরের পালি হিলের ‘বাস্তু’ আবাসনেই একসঙ্গে পথ চলার অঙ্গীকার করলেন রালিয়া। নবদম্পতিকে শুভেচ্ছায় ভরিয়ে দিয়েছেন অনুরাগী এবং তারকারা।

সূত্রের খবর অনুযায়ী আজ দুপুর ২ টোয় আলিয়ার বাড়াত নিয়ে রওনা হয় রণবীর। বিকেল ৩ টে নাগাদ সাঁতপাকে বাঁধা পড়েন রণবীর-আলিয়া। সম্পূর্ণ পাঞ্জাবী রীতি মেনে গায়েত্রী মন্ত্র উচ্চারণ করে সম্পন্ন হয়েছে বিয়ে। রালিয়ার বিয়ের সাক্ষী থাকলো কাপুর পরিবারের বয়সজ্যেষ্ঠ সদস্য সোনি রাজদানের মা এবং বাবা। সম্পর্কে রণবীরের দাদু দিদা। যাদের বয়স ৯০ উর্দ্ধে। তাঁদের ইচ্ছা, ছোট নাতনিকে নববধূ রূপে দেখে যাওয়ার। তাই তাঁদের ইচ্ছা পুরণ করার জন্যই আজ রণবীরের বাড়িতে বসেছিল বিয়ের আসর।

প্রসঙ্গত বি-টাউনে সবচেয়ে চর্চিত এই বিয়ের গুঞ্জন আজকের নয়। এর আগেও রণবীরের বিয়ের প্রসঙ্গে নাম জড়িয়েছিল অন্যান্য নায়িকাদের। প্রথমে দীপিকা তারপর ক্যাটরিনা। তবে একে একে সকলের সাথেই ভেঙেছে প্রেমের সম্পর্ক। অবশেষে ক্যাটরিনার সঙ্গে সম্পর্ক ভাঙার কয়েকদিন পর থেকেই আলিয়ার সঙ্গে রণবীরের প্রেমের গুঞ্জন শোনা যায় বলিউডে। যদিও নিজেদের সম্পর্ক কখনও অস্বীকার করেননি আলিয়া ও রণবীর। তবে নিজেরা স্বীকার na করলেও নেটবাসীর চোখ এড়াতে পারেনি এই তারকা যুগল। শেষ মেষ নেটবাসীদের সন্দেহই হল সত্যি। গাঁটছড়া বাঁধলো রণবীর-আলিয়া। এখন তাঁদের বিয়ের ছবি প্রকাশ্যে আসার অপেক্ষা।

উল্লেখ্য আজ বিয়ের আসরে উপস্থিত ছিল দুই পরিবারের নিকট আত্মীয় সহ ঘনিষ্ট বন্ধু-বান্ধবরা। একে একে এসেছিলেন, নীতু, ঋদ্ধিমা, কারিনা, করিশ্মা, রানধীর, ববিতা কাপুর। মহেশ ভাট, শাহিন ভাট, সোনি রাজদান, করণ জোহার, আনিস জৈন, আরমান জৈন। রণবীরের প্রিয় বন্ধু অয়ন মুখোপাধ্যায়। একই সাথে উপস্থিত ছিলেন আম্বানি পরিবারের আকাশ আম্বানি, শ্লোকা আম্বানি। এছাড়াও উপস্থিত থাকতে দেখা যায় বচ্চন পরিবারকেও। এদিন সকলের উজ্জ্বল উপস্থিতিতেই বিয়ে সারলেন রালিয়া। শোনা যায় এর পরবর্তী অনুষ্ঠান অর্থাৎ রালিয়ার গ্রান্ড রিসেপশনে আয়োজন হবে মুম্বাইয়ের চেম্বুরে অবস্থিত আরকে ষ্টুডিওতে।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories