Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

‘এতদিন যে খাওয়াতো সে এখন হাসপাতালের ভাত খাচ্ছে’, কেষ্টকে কটাক্ষ করে নকুলদানা বিলি দিলীপের

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

প্রাতঃভ্রমণের অভ্যাস তাঁর বহুকালের, প্রায় প্রতিদিনই প্রাতঃভ্রমণে বের হন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি দিলীপ ঘোষ। প্রাতঃভ্রমণে বেরিয়ে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হন তিনি। বঙ্গ রাজনীতি নিয়ে ব্যক্ত করেন নিজের অভিমত। যা অনেকসময় হয়ে যায় সংবাদের শিরোনাম। কিন্তু আজ প্রাতঃভ্রমণে বেরিয়ে নকুলদানা বিলি করতে দেখা গেল দিলীপ ঘোষকে। একদিকে নকুলদানা বিলি করলেন, অন্যদিকে তীব্র কটাক্ষ করলেন বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলকে।

কিছুদিন আগে গরুপাচার কাণ্ডে সিবিআই দপ্তর হাজিরা দেওয়ার কথা ছিল অনুব্রত মণ্ডলের। তবে, কলকাতা পৌঁছে সিবিআই দপ্তরে না গিয়ে তিনি চলে যান এসএসকেএম হাসপাতালে। উডবার্ন ওয়ার্ডে তিনি ভর্তি রয়েছেন। এখনও চিকিৎসা চলছে। আজ রাম মন্দিরের প্রসাদ নকুলদানা বিলি করলেন দিলীপ ঘোষ। আর জানালেন, “আমি সবাইকে রাম মন্দিরের প্রসাদ নকুলদানা খাওয়াচ্ছি। এতদিন যে নকুলদানা খাওয়াতো সে এখন হসপিটালের ভাত খাচ্ছে। সেই দায়িত্বটা নিতে হবে। বাকি জীবনটা লালুপ্রসাদের মত কাটবে। তার দায়িত্ব আমরা তাই পালন করছি।” এরপর বুদ্ধিজীবীদের কটাক্ষ করলেন দিলীপ ঘোষ।

ধর্ষণকাণ্ডে বুদ্ধিজীবীদের নীরবতা প্রসঙ্গে তিনি জানালেন, হাঁসখালির ঘটনায় কোনো মোমবাতি মিছিল কেন হয়নি? আগে মোমবাতি দেখিয়ে পেট চলতো। এখন পেটে এত চর্বি হয়ে গেছে যে হাঁটতে অসুবিধা হচ্ছে। মোমবাতি দেখিয়ে আগে দোকান চলত, এখন মোমবাতি দেখালে দানাপানির অসুবিধা হয়ে যাবে। বুদ্ধিজীবিদের কাছ থেকে কোন কিছুই আশা না করতে। আবার, রাজ্য বিজেপির পক্ষ থেকে বারবার রাজ্যে ৩৫৬ ধারা জারির দাবি উঠেছে। এ প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষ জানালেন, “যে রক্ষা করবে বলে মানুষ ভোট দিয়েছিল সেই এখন লুঠ করছে। কেন্দ্রের কাছে তাই আবেদন মানুষের স্বার্থ সুরক্ষিত করুক কেন্দ্রীয় সরকার।”

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories