Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

Ukraine Russia Conflict :  রাশিয়া-ইউক্রেনের যুদ্ধের মাঝে ভারতে মহাবিপদ ! ভোজ্য তেলের দাম বাড়বে বিশাল

1 min read

।। লিপিকা সরদার ।।

রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে চলমান যুদ্ধ ২০২২-২৩ অর্থবছরে সূর্যমুখী তেলের সরবরাহ ২৫% বা ৪ থেকে ৬ লক্ষ টন কমাতে পারে। এতে দাম বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। তবে ভোজ্য তেলের দাম ইতিমধ্যেই অনেক বেশি। দেশের ভোজ্যতেলের মোট ব্যবহার প্রায় ২৩০-২৪০ লক্ষ টন। এতে সূর্যমুখী তেলের অবদান ১০ শতাংশ। এর চাহিদার ৬০ শতাংশ পূরণ হয় আমদানির মাধ্যমে।

ভারত বছরে ২.৫ মিলিয়ন টন সূর্যমুখী তেল আমদানি করে। যেখানে ইউক্রেন ৭০% এবং রাশিয়া ২০% অবদান রাখে। ইউক্রেন ও রাশিয়া বছরে এক মিলিয়ন টন অপরিশোধিত সূর্যমুখী তেল আমদানি করে। ইউক্রেনের বন্দরে প্রায় ৩ লাখ টন সূর্যমুখী তেল আটকে আছে। সম্প্রতি রাশিয়া থেকে প্রতি টন ২,১৫০ ডলার মূল্যে ৪৫ হাজার টন সূর্যমুখী তেল কেনা হয়েছে।

ফেব্রুয়ারিতে দাম ৪% বেড়েছে

ভারতে ফেব্রুয়ারিতে সূর্যমুখী তেলের দাম বেড়েছে ৪%। তবে গত এক বছরে ভোজ্যতেলের দাম ১৫ থেকে ২০ শতাংশ বেড়েছে। দেশে সর্ষের আমদানি বাড়লেও দাম খুব একটা কমেনি। দেশে পাম, সয়াবিনের পর সূর্যমুখী তেলের চাহিদা বেশি। অন্যদিকে দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে তেলের মজুদ সীমা ৩১ শে ডিসেম্বর পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে, ভোজ্যতেল ও তৈলবীজের দাম নিয়ন্ত্রণ করতে সরকার এখন তার সঞ্চয়ের সীমা ২০২২ এর ৩১ শে ডিসেম্বর পর্যন্ত বাড়িয়েছে। ১ এপ্রিল থেকে এই সীমা প্রযোজ্য হয়েছে। সরবরাহ সংকটের কারণে আন্তর্জাতিক বাজারে ভোজ্যতেলের দাম বেড়েছে। এর প্রভাব পড়েছে ভারতের বাজারেও। সরকারি তরফ থেকে বলা হয়েছে, দাম কম রাখতে আমদানি শুল্ক কমানোর পাশাপাশি ওয়েব পোর্টাল তৈরিসহ বেশ কিছু ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এতে প্রত্যেককে তাদের স্টক স্ট্যাটাস সম্পর্কে তথ্য দিতে হবে। ভোজ্য তেলের ক্ষেত্রে, কেন্দ্রীয় সরকার খুচরো বিক্রেতাদের জন্য ৩০ কুইন্টাল, পাইকারদের জন্য ৫০০ কুইন্টালের সীমা নির্ধারণ করেছে।

পণ্যের দাম ৭ শতাংশ পর্যন্ত বাড়াবে ব্রিটানিয়া

ব্রিটানিয়া এ বছর তাদের পণ্যের দাম ৭ শতাংশ পর্যন্ত বাড়াবে। কাঁচামালের দাম বাড়ায় দাম বাড়াবে কোম্পানিটি। উপকরণের দাম দ্রুত বেড়েছে। রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে চলমান যুদ্ধের কারণে পণ্যের দাম বেড়েছে। সরবরাহেও প্রভাব পড়েছে। এ কারণে আগামী দিনে কোম্পানির পণ্য কিনতে গ্রাহকদের বেশি টাকা দিতে হবে। ব্রিটানিয়ার ম্যানেজিং ডিরেক্টর বরুণ বেরি বলেন, “আমি এতটা খারাপ দুই বছরের সময় দেখিনি। আমরা আগে বিশ্বাস করতাম চলতি বছরে মূল্যস্ফীতি ৩ শতাংশ হবে, কিন্তু এখন তা ৮ থেকে ৯ শতাংশে যেতে পারে”।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories