Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

“লিখতে বলেছিল, তাই সাদা কাগজে লিখে দিয়েছি”, চিঠি সম্পর্কে মন্তব্য আশিস বন্দোপাধ্যায়ের

।। প্রথম কলকাতা।।

বগতুই কাণ্ডে গ্রেফতার আনারুল হোসেনকে নিয়ে বীরভূম জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলকে চিঠি লিখেছিলেন বিধানসভার ডেপুটি স্পিকার আশিস বন্দোপাধ্যায় ।সেই চিঠি বর্তমানে প্রকাশ্যে এসেছে। আর ওই চিঠি প্রকাশ্যে আসার পর অনুব্রত মণ্ডলের দাবি, তিনি বেশ কিছু মাস আগেই রামপুরহাট ১ নম্বর ব্লকের ব্লক সভাপতি আনারুল হোসেনকে তার পদ থেকে সরিয়ে দিতে চেয়ে ছিলেন । যেহেতু আশিস বন্দ্যোপাধ্যায় তাকে চিঠি লিখে অনুরোধ জানান, যে পঞ্চায়েত ভোট পর্যন্ত যেন আনারুলকে রাখা হয়। তাই আনারুলকে পদ থেকে সরানোর সিদ্ধান্ত নিলেও অবশেষে তা হয়নি বলেই দাবি অনুব্রতর।

এই প্রসঙ্গে আশিস বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, ” বিধানসভা নির্বাচনের পর রামপুরহাট ব্লকের সমস্ত নেতৃত্বদের নিয়ে একটি সভা করা হয়েছিল। সেই সভাতে অনুব্রত মণ্ডল ,চন্দ্রনাথ সিনহা সহ আরও অন্যান্যরা ছিলেন। সেখানে বিধানসভা নির্বাচনের ক্ষেত্রে কোন শহরে তৃণমূল কী রকম পারফরম্যান্স করেছিল সে বিষয়ে আলোচনা করা হচ্ছিল। আর সেখানেই দেখা গেল বিধানসভা নির্বাচনে রামপুরহাটের তৃণমূল পিছিয়ে ছিল। তারপর রামপুরহাট ১ নম্বর ব্লকের প্রসঙ্গ উঠতেই বিধানসভা নির্বাচনের জন্য সেখানকার কাজ পর্যালোচনা করার পর প্রশ্ন উঠেছিল যে ব্লক সভাপতিকে রাখা হবে না সরিয়ে দেওয়া হবে। এরপর অন্যান্য ব্লকের সভাপতিরা তাকে রাখার পক্ষে মত দিয়েছিলেন”।

এর সাথে তিনি আরও যোগ করেন, ” সেখান থেকে আমাকে বলা হয়েছিল তাহলে তাকে রাখার বিষয়টি লিখে দিতে। তাই আমি লিখে দিয়েছিলাম। আমার নিজস্ব কোন প্যাড ব্যবহার করে, লিখিনি সাদা কাগজে লিখে দিয়েছিলাম”। অন্যদিকে অনুব্রত মণ্ডল বলেন আশিস বন্দোপাধ্যায় যেহেতু বিধানসভার প্রবীণ সদস্য তাই তাঁর অনুরোধ উপেক্ষা করতে পারেননি তিনি। যার ফলে আনারুলকে সরানোর ইচ্ছে থাকা সত্ত্বেও পঞ্চায়েত ভোট পর্যন্ত তাকে রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories