Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

অনুব্রতর পার্টি অফিসে বীরভূমের ডিএম,এসপি কেন?গোপন ছবি ফাঁস সুকান্তর

।। প্রথম কলকাতা ।।

বালি পাথর খাদান থেকে বখরার টাকা তৃণমূল নেতৃত্বের কাছে যেতে বলে দাবি বিজেপির।দলের সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডার কাছে রিপোর্ট জমা দিয়েছে বিজেপি। আবার উল্টোদিকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অনুব্রত মণ্ডলকে গ্রেফতারের ষড়যন্ত্র চলছে বলে দাবি করেছেন।

মুখ্যমন্ত্রী বলেছিলেন আমার জেলা সভাপতির নাম করেছে এটা খুব খারাপ তদন্ত না করে কী করে আমার জেলা সভাপতির নাম উল্লেখ করতে পারে। তারমানে অনুব্রতকে গ্রেপ্তার করতে চায় ।তাহলে তো ব্যক্তিগত শত্রুতার ব্যাপার হয়ে যাচ্ছে। যারাই বিজেপির বিরোধিতা করছে ওরা সবাইকে গ্রেফতার করতে চায় এভাবে সবার মুখ বন্ধ চাইছে বিজেপি। আমি বিজেপি এবং কেন্দ্রীয় সরকারের এই মনোভাবের তীব্র নিন্দা করছি।

রামপুরহাটের ঘটনায় অনুব্রত মণ্ডলের ভূমিকা নিয়ে একাধিক প্রশ্ন তোলা হচ্ছে। যা থেকে তৃণমূলের আশঙ্কা বিজেপি এবার নিশানায করছে অনুব্রত মণ্ডলকে।এই পরিস্থিতিতে একটি বিস্ফোরক পোস্ট করেছেন সুকান্ত মজুমদার। তিনি লিখেছেন, প্রশাসনিক শীর্ষ কর্তারা তৃণমূলের পার্টি অফিসে এসে কি করতেন? রাজনৈতিক দল এবং প্রশাসন দুটো যে ভিন্ন বিষয় সেটা দিদির সরকার বারবার গুলিয়ে ফেলে। প্রশাসন যেখানে দলদাস। এটা কোনো প্রশাসনিক ভবনের বৈঠক নয়।

এটা বীরভূম জেলার তৃণমূলের পার্টি অফিস। যেখানে জেলার দুই শীর্ষ আধিকারিক ডিএম এবং এসপি দোর্দণ্ড প্রতাপ নেতার আমন্ত্রণে গুড় বাতাসার পাচন খেতে গিয়েছিলেন। এবারেও বানতে হবে প্রশাসন নিরপেক্ষ। লেখ সুকান্ত মজুমদার ছবি শেয়ার করেছেন সেখানে দেখা যাচ্ছে টেবিলের এক দিকে অনুব্রত মণ্ডল বসে আছেন অপর দিকে ডিএম এবং এসপি বসে কথা বলছেন। অনেকেই কমেন্ট করেছেন তার এই পোস্টটিতে একজন লিখেছেন এবার সিবিআই অক্সিজেন সাপ্লাই টা ঠিকঠাক দেবে। আবার একজন লিখেছেন চরম লজ্জা বাংলা তথা গণতন্ত্রের।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories