Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

জেলে আর বেশি দিন থাকতে হবে না! বন্দিদের দ্রুত মুক্তি দিতে এল নয়া উপায়

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

এমন বহুবার হয়েছে শুধুমাত্র একটা কাগজ জেল জেলা প্রশাসনের কাছে না আসার কারণে জেলে থাকা বন্দিদের প্রায় অতিরিক্ত কয়েক দিন আটকে থাকতে হয়েছে। কখনো বা অপরাধ ছাড়াও রাত কাটাতে হয়েছে গারদে । যাতে বন্দিরা খুব দ্রুত মুক্তি পায় বা কোন হয়রানির শিকার না হন তার জন্য নিয়ে আসা হল একটি নতুন প্রযুক্তি, নাম দেওয়া হয়েছে ফাস্টার ( FASTER )। এর মাধ্যমে বন্দিদের দ্রুত মুক্তি দেওয়া সম্ভব।

বন্দিদের মুক্তির প্রক্রিয়া ত্বরান্বিত করতে একটি বড় পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায় প্রধান বিচারপতি এনভি রমনা বৃহস্পতিবার ‘ফাস্ট অ্যান্ড সিকিউরড ট্রান্সমিশন অফ ইলেকট্রনিক রেকর্ডস’ (ফাস্টার) সফটওয়্যার চালু করেন। প্রধান বিচারপতি এর জন্য বিচারপতি চন্দ্রচূড়, বিচারপতি জে খানউইলকর এবং বিচারপতি গুপ্তাকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। এই সফটওয়্যারের মাধ্যমে বন্দিদের মুক্তির প্রক্রিয়া দ্রুত শেষ হবে।

মুক্তির প্রক্রিয়া কত দ্রুত হবে?

প্রকৃতপক্ষে বর্তমানে জামিন পাওয়ার পর আদেশের অনুলিপি জেল প্রশাসনের কাছে পৌঁছাতে দীর্ঘ সময় লেগে যায়, যার কারণে বন্দিদের মুক্তি দিতে ২-৩ দিন দেরি হয়। অর্ডারের কপি ইলেকট্রনিক মোডে দ্রুত ও নিরাপদ পদ্ধতিতে ‘ফাস্টার’-এর মাধ্যমে পাঠানো হবে। যার কারণে বন্দিদের মুক্তি পেতে বেশি সময় লাগবে না।

হঠাৎ এমন ব্যবস্থা কেন ?

দ্রুততর ব্যবস্থা চালু করে প্রধান বিচারপতি জানান, জুলাই মাসে সুপ্রিম কোর্ট থেকে জামিন পাওয়ার পরও তিন দিন পরও বন্দি কারাগার থেকে মুক্তি পাননি, কারণ আদালতের কপি জেলে পৌঁছায়নি। সে কারণেই তখন এই নতুন ব্যবস্থা চালুর কথা ভাবা হয়। সেই পরিকল্পনা বাস্তবায়িত করতে সেপ্টেম্বরে, সুপ্রিম কোর্ট আদেশের অনুলিপি দ্রুত সরবরাহের জন্য একটি ইলেকট্রনিক সিস্টেম চালু করার নির্দেশ দিয়েছিল। সুপ্রিম কোর্ট এই সফটওয়্যার চালু করেছে যাতে অবিলম্বে আদালতের আদেশ এবং সিদ্ধান্ত নিরাপদে সংশ্লিষ্ট কারা কর্তৃপক্ষ এবং হাইকোর্টে পাঠানো হয়।

প্রধান বিচারপতি জানান, ‘ফাস্টার’-এর জন্য ৭৩ জন নোডাল অফিসারকে মনোনীত করা হয়েছে। এই কর্মকর্তারা নির্দিষ্ট বিচারিক যোগাযোগ নেটওয়ার্কের সাথে যুক্ত। এসব কর্মকর্তাকে মেইলের মাধ্যমে অন্যান্য বিচার বিভাগীয় কর্মকর্তা ও জেল প্রশাসনের সঙ্গে যুক্ত করা হবে।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories