Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

১২৮ রানের পুঁজি নিয়ে অবিশ্বাস্য লড়াই, দলকে নিয়ে গর্বিত কেকেআর অধিনায়ক শ্রেয়স

।। প্রথম কলকাতা ।।

বুধবার ডিওয়াই পাতিল স্টেডিয়ামে আয়োজিত ম্যাচে মরসুমের প্রথম হারের মুখ দেখেছে গতবারের রানার্স আপ কলকাতা নাইট রাইডার্স। নীতিশ রানারা প্রথমে ব্যাট করে মাত্র ১২৮ রানে অলআউট হয়ে যান। অল্প রানের পুঁজি নিয়েই রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের সামনে কঠিন চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছিলেন কেকেআর বোলাররা। ফাফ দ্যু প্লেসিরা জয় পেয়েছেন শেষ ওভারে, খোয়াতে হয়েছে সাতটি উইকেট। দলের এমন লড়াই নিয়ে গর্বিত কলকাতা নাইট রাইডার্স অধিনায়ক শ্রেয়স আইয়ার।

ম্যাচ শেষে দেওয়া সাক্ষাৎকারে কলকাতা নাইট রাইডার্সের নতুন অধিনায়ক শ্রেয়স বলেন – ” ম্যাচটি আকর্ষনীয় হয়ে উঠেছিল। মাঠে নামার আগে দলের ছেলেদের সঙ্গে কথা বলেছিলাম। জানিয়েছিলাম রানটাকে ডিফেন্ড করতে পারি বা না পারি এই ম্যাচটাই আমাদের চরিত্র ও মানসিকতা স্পষ্ট করে দেবে। মাঠে আমরা যেভাবে লড়েছি তা আগামী কয়েকটি ম্যাচে আত্মবিশ্বাস জোগাবে। “

শেষ ওভার অবধি ম্যাচ গড়ানোয় তৃপ্ত শ্রেয়স বলেন – ” ম্যাচটি আমরা যেভাবে খেলেছি তাতে গর্বিত। সত্যিই ওই মুহূর্তে কাজটা কঠিন ছিল। দলের সেরা বোলারদের দিয়ে প্রথমদিকে কয়েকটি উইকেট তুলে নেওয়ার পরিকল্পনা ছিল। তবে সেই পরিকল্পনার পুরোটা কাজে আসেনি। প্রতিপক্ষ দলের ব্যাটারদের কুর্নিশ। ওরা মাঝের ওভারগুলিতে ভালো খেলেছে। ” গুরুত্বপূর্ণ সময়ে ভেঙ্কটেশ আইয়ারের হাতে বল তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে শ্রেয়স জানান – ” ভেঙ্কটেশ আন্তর্জাতিক স্তরে বোলিং করেছে। প্রতিযোগিতার প্রথম থেকে এই ধরনের ক্রিকেটারদের সমর্থন জোগানো দরকার। “

চার উইকেট দখল করে কলকাতা নাইট রাইডার্স ব্যাটিং লাইনআপকে বিধ্বস্ত করে দেওয়া ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গার উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেছেন শ্রেয়স। প্রতিপক্ষ দলের তারকা স্পিনার অলরাউন্ডারের দারুণ পারফর্মেন্স নিয়ে কলকাতা নাইট রাইডার্স অধিনায়ক বলেন – ” এই ম্যাচে হাসারাঙ্গা দুর্দান্ত বোলিং করেছে। আমাকে ফেরানোর পর ও মোমেন্টাম পেয়ে যায়। প্রথম দিকে ওর বল পড়তে আমার খুব একটা অসুবিধা হয়নি। আমরা ওকে অফ স্পিনার হিসাবে খেলার পরিকল্পনা করেছিলাম। কিন্তু হাসারাঙ্গা দুর্দান্ত লাইন, লেন্থে বল রেখে আমাদের কাজ কঠিন করে দেয়। ওর অভিজ্ঞতা রয়েছে তারপর পিচের সহায়তা ছিল। হাসারাঙ্গাকে অভিনন্দন। “

Categories