Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

অনুব্রত মণ্ডলকে গ্রেফতারের চক্রান্ত! বিজেপির রিপোর্ট নিয়ে বিস্ফোরক মমতা

।। প্রথম কলকাতা ।।

রামপুরহাট কাণ্ডের পর বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা ৫ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করেন। ওই কমিটি আজ সেই ঘটনার রিপোর্ট পেশ করল। সেখানে তৃণমূলের বীরভূম জেলা সভাপতির নাম উল্লেখ করা হয়। সেই প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন বিজেপি চায় যাতে জেলা সভাপতিকে গ্রেফতার করা হোক। নাম না করেই তিনি অনুব্রত মণ্ডলের গ্রেফতারের জন্য যে চক্রান্ত করা হচ্ছে তা উল্লেখ করেন । রামপুরহাট কান্ডে বিজেপির এই রিপোর্ট বড়োসড়ো ষড়যন্ত্র বলে দাবি তাঁর।

আজ শৈলশহর থেকেই মুখ্যমন্ত্রী বিজেপির রিপোর্ট নিয়ে তীব্র নিন্দা করেন। তিনি বলেন বিজেপির এই রিপোর্ট সিবিআই তদন্তকে দুর্বল করবে এবং প্রভাবিত করবে। এই রিপোর্ট তদন্ত কে ভুল পথে চালিত করার জন্য তৈরি করা হয়েছে। এমনকি এদিন বিজেপি এবং কেন্দ্রীয় সরকারের মনোভাবের নিন্দা করেন তিনি। এদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘ রিপোর্টে তৃণমূলের জেলা সভাপতির নাম উল্লেখ করা হয়েছে। বিজেপি চাইছে তৃণমূলের জেলা সভাপতিকে গ্রেফতার করা হোক । রাজনৈতিক প্রতিহিংসা চরিতার্থ করতেই এই ধরনের রিপোর্ট’।

তদন্তের আগেই কীভাবে রামপুরহাটকান্ডে বিজেপি রিপোর্ট পেশ করল সেই নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। বগতুই কাণ্ডের পর যে পাঁচ সদস্যের টিম গঠন করা হয়েছিল সেই কমিটিতে ছিলেন উত্তর প্রদেশের প্রাক্তন ডিজি এবং রাজ্যসভার সাংসদ ব্রিজলাল, মুম্বাইয়ের প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার ও সাংসদ সত্যপাল সিং, প্রাক্তন আইপিএস অফিসার ও রাজ্যসভার সাংসদ কে সি রামমূর্তি, রাজ্য বিজেপি সভাপতি সুকান্ত মজুমদার এবং প্রাক্তন আইপিএস অফিসার ও বিজেপির জাতীয় মুখপাত্র ভারতী ঘোষ। এই প্রতিনিধিদের দল বগতুই গ্রামে এসে পরিস্থিতি খতিয়ে দেখেন এবং আজ সেই রিপোর্ট পেশ করেন।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories