Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

‘শুধু সাসপেন্ড নয়, হাউস অ্যারেস্ট করে রাখা উচিত’,তৃণমূল বিধায়ক প্রসঙ্গে মন্তব্য অগ্নিমিত্রা পলের

।। প্রথম কলকাতা।।

পাণ্ডবেশ্বর তৃণমূল বিধায়ক নরেন চক্রবর্তীকে সাত দিনের জন্য সাসপেন্ড করা হয়েছে নির্বাচন কমিশনের তরফ থেকে। গতকাল এই তৃণমূল বিধায়কের ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওর বক্তব্য নিয়ে তুমুল সমালোচনা হয়েছে। সেই বক্তব্য নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করেছে বলেই দাবি নির্বাচন কমিশনের । সেখানে নরেন চক্রবর্তীকে বলতে শোনা যায় ‘যারা কট্টর বিজেপি তাদেরকে চমকাতে হবে’, এই ধরনের বক্তব্যের জন্য নির্বাচন কমিশনের ৩২৪ ধারা অনুযায়ী আগামী সাতদিন কোনরকম নির্বাচনী মিটিং মিছিল এবং রোড শোতে অংশগ্রহণ করতে পারবেন না পাণ্ডবেশ্বর তৃণমূল বিধায়ক নরেন চক্রবর্তী।

এর পরিপ্রেক্ষিতে আসানসোলের বিজেপি প্রার্থী অগ্নিমিত্রা পলকে বলতে শোনা যায়, ” খুব ভালো পদক্ষেপ, তার জন্য নির্বাচন কমিশনকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। কিন্তু এই ধরনের মানুষকে শুধু সাত দিনের জন্য সাসপেন্ড করলেই হবেনা। নরেন চক্রবর্তীর মতন আরও যারা মানুষ আছেন তাদেরকে শিক্ষা দেওয়ার জন্য আগামী ১২ তারিখ পর্যন্ত তাকে হাউস অ্যারেস্ট করে রাখা উচিত”। এছাড়াও তাকে বলতে শোনা যায়, ” এই ধরনের মানুষ মাননীয় মুখ্যমন্ত্রীর পরিচালনায় এই গুন্ডামি করছে। রাজ্য বিশৃঙ্খলা, অরাজকতা সবকিছুই হচ্ছে মুখ্যমন্ত্রী নির্দেশে”

এদিন বাসন্তীতে হওয়া বোমা বিস্ফোরণের ঘটনার প্রসঙ্গ টেনে এনে অগ্নিমিত্রা পল বলেন, ওই ঘটনায় বোমা বাঁধতে গিয়ে এক তরতাজা যুবকের প্রাণহানি হয়েছে । এ রাজ্যে চাকরি নেই যুবকদের জন্য, কিন্তু বোমা বাঁধার চাকরি রয়েছে। পশ্চিমবঙ্গের বর্তমানে যা অবস্থা তাঁর জন্যে দায়ী রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী এবং পুলিশ মন্ত্রী । তাই এইসব ঘটনার দায় তাদেরকে নিতেই হবে। অন্যদিকে নরেন চক্রবর্তীকে জেলে নেওয়া হোক, এমনটাই দাবি জানালেন অগ্নিমিত্রা পল। তাঁর জন্য সাত দিনের সাসপেনশন যথেষ্ট নয়। বদলে হাউস অ্যারেস্ট করা হোক তাকে।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories