Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

মর্মান্তিক ! প্রেমের টানে ঘর ছাড়তে গিয়ে তড়িদাহত হয়ে মৃত্যু কিশোরীর

।। প্রথম কলকাতা।।

বয়স মাত্র ১৭। এ বছরের মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী ছিল এই কিশোরী ,কিন্তু প্রেমের ডাকে সাড়া দিতে গিয়ে অন্ধকারে বাড়ি ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল সে । তাই পরিবারের সবাই যখন ঘুমে আচ্ছন্ন সেই সুযোগ নিয়ে বাড়ির সকলের অগোচরে বেরিয়ে এসেছিল রাস্তায়। আর তারপর মাঠের আলপথ ধরে নিশুতি রাতে গ্রাম থেকে বেরিয়ে যাবার ফন্দি এঁটেছিল সে নিজে। কিন্তু অবশেষে তাঁর পরিকল্পনা সফল তো হলই না পাশাপাশি অকালে এমন মর্মান্তিক ভাবে প্রাণ হারাতে হল ওই কিশোরীকে।

কী ঘটেছিল ঘটনাটি? পূর্ব বর্ধমান জেলার আউশগ্রাম থানার ভেদিয়ায় ঘটে এই ঘটনা। সেখানে রবিবার সকালে একটি স্ট্রবেরি ক্ষেতের পাশে এক কিশোরীর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। আর সেই মৃতদেহকে ঘিরে ওঠে নানান প্রশ্ন। পুলিশ সূত্রে খবর স্ট্রবেরি ক্ষেতের জমির বেড়ার সঙ্গে বিদ্যুতের তার জড়িয়ে রেখে ছিলেন কৃষক। আর রাতের অন্ধকারে সেই তার গায়ে জড়িয়েই বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু হল বছর ১৭ ওই তরুণীর।

পরিবার সূত্রে খবর, ওই কিশোরী এ বছরের মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী ছিল । আউশগ্রামের দীপচন্দ্রপুর গ্রামের বাগান পাড়ার বাসিন্দা সে, কিন্তু মাধ্যমিক পরীক্ষা শুরু হবার আগেই গত ১ লা মার্চ বাড়ি থেকে নিখোঁজ হয়ে গিয়েছিল। পরিবারের সদস্যরা বহু খোঁজাখুঁজি করে অবশেষে নদিয়া জেলার নবদ্বীপ থেকে তাকে উদ্ধার করে। জানা যায় সেখানে এক যুবকের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক তৈরি হয়েছিল তার।তাই বাড়ি ছেড়ে সে প্রেমিকের কাছে পালিয়ে গিয়েছিল।

সেবারের মতো তাঁর পরিবারের সদস্যরা তাকে বাড়ি ফিরিয়ে আনে কিন্তু মাধ্যমিক পরীক্ষার দেওয়া হয়ে ওঠেনি ওই ছাত্রীর। তারপর থেকে ওই ছাত্রীর মা তাকে বেশ চোখে চোখেই রাখতেন। বার বার বোঝানোর চেষ্টা করেছিলেন কিন্তু তাতে কোন কাজ হয়নি। আবারো নিজের প্রেমিকের কাছে পালিয়ে যাবার জন্য মনে মনেই পরিকল্পনা আঁটতে থাকে সে। শনিবার রাতে সেই সুযোগ বুঝে ফের ঘর ছেড়ে বেরিয়ে এসেছিল ওই কিশোরী আর তারপরেই মৃত্যুর হাতছানি।

স্থানীয় সূত্রের খবর সেখানকার এক কৃষক শ্যামানন্দন পাঠক অজয়নদের চরে বেশ কিছুটা জায়গা জুড়ে স্ট্রবেরি চাষ করেছেন । আর সেই ফসল যাতে কেউ চুরি করে নানায় তার জন্য জমির পাশে বেড়া তো দিয়েছেনই আবার সেই বেড়ার সঙ্গে জড়িয়ে রেখেছেন বিদ্যুতের তার। এমনকি ওই জমি দেখাশুনা করার জন্য একজন কেয়ারটেকার রেখেছেন তিনি। রবিবার সকালে কিশোরীর বিদ্যুৎস্পৃষ্ট মৃতদেহ উদ্ধার হওয়ার পরে ওই কেয়ারটেকার লক্ষণ যাদব স্বীকার করেন যে ,জমির বেড়ার তার শরীরে লাগার ফলে মৃত্যু হয়েছে ওই কিশোরীর কিন্তু সেই বিদ্যুতের তার নিছকই ফসল চুরি রুখতে লাগানো হয়েছিল। আপাতত কিশোরীর মৃতদেহ ময়না তদন্তে পাঠানো হয়েছে বলে জানায় পুলিশ।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories