Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

দেউচা আটকাতেই রামপুরহাট ষড়যন্ত্র! দলের নেতাদেরও কড়া বার্তা দিলেন মমতা

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

বগতুই নিয়ে রাজ্যের কাছে কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হয়েছে সরকারকে। বিরোধী দল থেকে সাধারণ মানুষ ক্ষোভ প্রকাশ করেছে সরকারের ওপরেই। অন্যদিকে রাজ্যের আদালত ঘটনার তদন্তে ভরসা রাখেনি রাজ্য সরকারের ওপর। উল্টে রাজ্যে তদন্তের এক্তিয়ার বন্ধ করে ঘটনার তদন্তের ভার গিয়েছে CBI এর হাতে। ঘটনাস্থল পরিদর্শনে গিয়েছিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। প্রশ্ন উঠছিল ঘটনার দুদিন পর কেন ঘটনাস্থলে যাচ্ছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিরোধীরা বলেছিলেন তিনি প্রমাণ লোপাট করতে আসছেন কেউ কেউ বলেছিলেন আগে মন্ত্রীদের পাঠিয়ে পরিস্থিতি বুঝে তার পর তিনি আসবেন।

তবে ঘটনা প্রসঙ্গে মুখ খুলে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বগতুই যাওয়ার আগেই জানিয়েছিলেন, তিনি আগেই যেতেন, কিন্তু বিজেপি প্রতিনিধি দল গিয়েছে বলে যাননি। পায়ে পা লাগিয়ে ঝগড়া করার ইচ্ছে নেই তাঁর। আজ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, ” আমি যাতে যেতে না পারি, সকাল বিকেল দুপুর সেজেগুজে চলে যাচ্ছে।” বগতুই এই ঘটনা নিন্দনীয় বলে তিনি সঙ্গে প্রশ্ন তুলেছেন, উন্নাও, হাথরস বা লখিমপুরের ঘটনায় CBI তদন্ত হয়েছে কিনা? জানতে চেয়েছেন মানুষ কী বিচার পেয়েছে । তিনি বলেন, “উন্নাও, হাথরস, লখিমপুরের ঘটনায় কী বিচার হয়েছে? সিবিআই হয়েছে? অসমে এনআরসি নিয়ে কত লোকের মৃত্যু হল, দিল্লতে কত লোক মারা গেল। কেউ বিচার পেয়েছে? কর্নাটক, উত্তরপ্রদেশে বিচার হয়েছে? ত্রিপুরা, অসম, উন্নাও, দিল্লির হিংসায় আমাদের প্রতিনিধি দলকে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। আর এখানে আমি যাতে যেতে না পারি তাই সকাল-বিকেল সেজেগুজে টিভিতে চলে যাচ্ছে।” বারবার বিভিন্ন ঘটনায় আঙুল উঠেছে সরকারের দিকে। বগতুই এর ঘটনায় দলের নেতাকে গ্রেফতারের নির্দেশ দিয়েছিলেন তিনি নিজেই।

বারবার নেতাদের সতর্ক বার্তা দিয়েছেন। আজ বলেন, ” দু মাস সময় দেব, কোন নেতার বিরুদ্ধে অভিযোগ থাকলে জানাবেন। সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা নেব।” তিনি বলেন, ‘‘আজ সকলের হাতে মোবাইল থাকে। প্রয়োজনে ছবি তুলে পাঠাবেন। সাংবাদিকদেরও বলব। প্রয়োজনে আমাকেও ছবি পাঠাতে পারেন। কেউ এই ধরনের ঘটনা ধরিয়ে দিলে সরকার থেকে পুরস্কার দেওয়া হবে। আগামী দু’মাস টাইম নেব। তার পর কারও বিরুদ্ধে দুর্নীতি, খুনখারাপি, অত্যাচারের অভিযোগ থাকে, আমি আর একটা সেট আপ তৈরি করব। যেটা করেছিলাম ‘দিদিকে বলো’। নামটা এখন আমি বলছি না। আপনারা ফোন করে বললে আমি সঙ্গে সঙ্গে অ্যাকশন নেব।’’ আজ পাহাড় থেকেই মমতা বলেন, রামপুরা ষড়যন্ত্র দেউচা পাঁচামি আটকাতে। কারণ বিরোধীরা চায়না সেখানে উন্নতি হোক। ছেলে মেয়েরা চাকরি করুক। সেই কারণেই এই ঘটনা ঘটিয়েছে।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories