Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

‘শহুরে নকশালরা কংগ্রেসকে হাইজ্যাক করেছে’: গ্র্যান্ড ওল্ড পার্টিকে তীব্র কটাক্ষ মোদীর

1 min read

।।প্রথম কলকাতা।।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আজ রাজ্যসভায় রাষ্ট্রপতির বক্তৃতায় ধন্যবাদ প্রস্তাবের বিতর্কের জবাব দেওয়ার সময় বিরোধীদের উপর সর্বাত্মক আক্রমণ চালিয়েছেন। পরিবারতন্ত্র, জরুরি অবস্থা, কোভিড মহামারি, শিখ নিধন, এবং মুদ্রাস্ফীতি নিয়ে এদিন কংগ্রেসকে তীব্র কটাক্ষ করেছেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, কংগ্রেস হল, ‘রাজবংশীয় উপহাস’। সেই সঙ্গে বলেন, কংগ্রেস হল, শহুরে নকশাল কাঁটা। মোদী বলেছেন, ‘এই দলটিকে (কংগ্রেস) হাইজ্যাক করে নিয়েছে শহুরে নকশালরা।’ করোনা মহামারি চলাকালীন বিরোধীদের আচরণকে ‘অপরিপক্ক’ অভিহিত করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

‘শহুরে নকশালরা কংগ্রেসকে হাইজ্যাক করেছে’:
রাজ্যসভায় প্রধানমন্ত্রী আজ বলেন, ‘কংগ্রেসের মানসিকতা এখন আরবান নকশালরা হাইজ্যাক করে নিয়েছে। দলের নেতারা এখন নকশালদের মতাদর্শ দ্বারা ব্যাপকভাবে প্রভাবিত। এটি গ্র্যান্ড ওল্ড পার্টির উপর সবচেয়ে বড় আক্রমণ।’

কংগ্রেস না থাকলে কী হত?
মোদীর দাবি, মহাত্মা গান্ধীও চেয়েছিলেন, স্বাধীনতার পরে কংগ্রেস ভেঙে যাক। এরপর তিনি বলেন, ‘আমি বলতে চাই, কংগ্রেস না থাকলে জরুরি অবস্থা হত না, জাতপাতের রাজনীতি থাকত না, শিখদের কখনও গণহত্যা করা হত না, কাশ্মীরি পণ্ডিতদের ঘটনা ঘটত না।’ পাশাপাশি তিনি বলেন, ‘ভারত রাজবংশীয় শাসনমুক্ত হবে এবং বিদেশি মানসিকতার দ্বারা প্রভাবিত না হয়ে স্বদেশী পথে হাঁটবে। কংগ্রেস না থাকলে গরিব মানুষ বিদ্যুৎ ও জল পেত।’

‘কংগ্রেস রাজবংশের বাইরে চিন্তা করেনি’:
কংগ্রেস চেয়েছে রাজবংশকে অব্যাহত রাখতে। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “কংগ্রেস নেতা ডি কে বারোয়ার স্লোগান তুলেছিলেন, ‘ইন্দিরা ইজ ইন্ডিয়া, ইন্ডিয়া ইজ ইন্দিরা’। কিছু লোক বিশ্বাস করেন, ভারতের জন্ম ১৯৪৭ সালে। কংগ্রেস শুধুমাত্র রাজবংশ শাসনে বিশ্বাস করে।”

করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে দেশের লড়াই:
করোন ভাইরাসের বিরুদ্ধে ভারতের লড়াইয়ের প্রশংসা করে আজ প্রধানমন্ত্রী মোদী বিরোধীদের উপর তীব্র আক্রমণ করেছেন। তিনি বলেন, ‘বিরোধী নেতারা বলেছেন, টিকা দেওয়া বড় কথা নয়। তাঁরা ভ্যাকসিনকে অর্থের অপচয় বলে মনে করছেন। এই অপরিপক্কতা ভারতীয়দের হতাশ করেছে।’

ইউপিএ-এর আমলে দুই অঙ্কের মুদ্রাস্ফীতি:
আজ মুদ্রাস্ফীতি নিয়ে বিরোধীদের পাল্টা জবাব দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। রাজ্যসভায় ভাষণ দেওয়ার সময় কংগ্রেসকে কটাক্ষ করেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। তিনি বলেন, ‘ইউপিএ জামানায় মুদ্রাস্ফীতি দুই অঙ্কে পৌঁছেছিল। বর্তমান সময়ে, ভারতই একমাত্র দেশ যেখানে মাঝারি মুদ্রাস্ফীতি এবং উচ্চ প্রবৃদ্ধি নিবন্ধিত হয়েছে।’

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়া

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories