Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

করোনা ভ্যাকসিনের জন্য বাধ্যতামূলক নয় আধার কার্ড, জানাল কেন্দ্র

1 min read

।।প্রথম কলকাতা।।

এতদিন সাধারণ মানুষের ধারণা ছিল, কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনেশনের ক্ষেত্রে বাধ্যতামূলক আধার কার্ড। তবে আজ কেন্দ্র দেশের শীর্ষ আদালতকে জানিয়েছে, এই দারণা সম্পূর্ণ ভুল। টিকা নেওয়ার সময় বাধ্যতামূলক নয় আধার কার্ড। আজ সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড় এবং সূর্য কান্তের বেঞ্চকে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রক জানিয়েছে, পাসপোর্ট, ড্রাইভিং লাইসেন্স, প্যান কার্ড, ভোটার কার্ড, রেশন কার্ড সহ নয়টি পরিচয়পত্রের মধ্যে যে কোনও একটি দিয়ে করোনা টিকা নেওয়া যেতে পারে।

এর আগে কোউইন পোর্টাল ও আধার কার্ড নিয়ে দেশের শীর্ষ আদালতে একটি একটি জনস্বার্থ মামলা দায়ের করা হয়। সেই মামলায় দাবি করা হয়েছিল, কিছু কিছু কোভিড ভ্যাকসিনেশন কেন্দ্র টিকাকরণের সময় আধার কার্ড দেখানোর জন্য জোর দিচ্ছে। সেই মামলার নিষ্পত্তি করতে গিয়ে বিচারপতি ডিওয়াই চন্দ্রচূড় এবং সূর্য কান্তের বেঞ্চ বলেছে, কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনেশনের ক্ষেত্রে আধার কার্ডকে একমাত্র পরিচয়পত্র হিসাবে জোর দেওয়া যাবে না।

পিআইএল নিষ্পত্তি করার সময় বেঞ্চ বলেছে, ‘স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রক পিটিশনে একটি হলফনামা দাখিল করেছে। সেখানে বিশেষভাবে উল্লেখ করা হয়েছে যে, কোউইন পোর্টালে রেজিস্ট্রেশনের জন্য আধার কার্ড বাধ্যতামূলক নয়। ন’টি সরকারি পরিচয় পত্রের যে কোনও একটি দেখালেই মিলবে ভ্যাকসিন।’ সেই সঙ্গে বেঞ্চ নির্দেশ দিয়েছে, সমস্ত সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে স্বাস্থ্য মন্ত্রকের নীতি অনুসরণ করে কাজ করতে হবে।

কেন্দ্রের পক্ষের আইনজীবী আমন শর্মা এদিন দুই বিচারপতির বেঞ্চকে বলেছেন, যে আধারই একমাত্র পূর্ব শর্ত নয়। সেই সঙ্গে তিনি জানান, কোনও পরিচয়পত্র ছাড়াই দেশের ৮৭ লক্ষ নাগরিককে ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে। এদিকে, আবেদনকারীর আইনজীবী মায়াঙ্ক ক্ষীরসাগর যুক্তি দিয়েছেন, ভ্যাকসিন কেন্দ্রগুলির আধার কার্ড চাওয়া উচিত নয়। এই জনস্বার্থ মামলা দায়ের করেছিলেন পুণের এক আইনজীবী ও সমাজকর্মী সিদ্ধার্থশঙ্কর শর্মা। তিনি বলেছেন, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের কাজকর্মের বিরোধী এটি।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়া

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories