Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

‘কলকাতায় দ্বিতীয় বিমানবন্দরের জমি নিয়ে টালবাহানা রাজ্য সরকারের’: অভিযোগ সিন্ধিয়ার

1 min read

।।প্রথম কলকাতা।।

বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সব সময় বলে থাকেন, কেন্দ্র নাকি কোনও সাহায্যই করে না। কেন্দ্রের বিরুদ্ধে বারবার বঞ্চনার অভিযোগ তোলেন তৃণমূল সুপ্রিমো। কিন্তু কেন্দ্র জানিয়েছে, তারা বাংলার উন্নতি চাইলেও সাহায্যের হাত বাড়ানোর সদিচ্ছা দেখাচ্ছে না তৃণমূল সরকার। কলকাতায় দ্বিতীয় বিমানবন্দর তৈরির পরিকল্পনা রয়েছে কেন্দ্রের। কিন্তু বিমানবন্দর তৈরি করতে যে বিপুল পরিমাণ জমির প্রয়োজন তা নাকি দিয়েই উঠতে পারেনি রাজ্য সরকার। কেন্দ্রের অসামরিক বিমান পরিবহণমন্ত্রী জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া বলেছেন, জমি চেয়ে সরকারের সঙ্গে আলোচনায় বসতে চেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু বঙ্গ সরকারের তরফে কোনও সাড়া মেলেনি।

জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া কলকাতায় সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমরা এখানে নতুন বিমানবন্দর গড়তে চাই৷ বর্তমান বিমানবন্দরটি তার সর্বোচ্চ ধারন ক্ষমতা অনুযায়ী চলছে। ইচ্ছে থাকলেও, এখান থেকে আরও বেশি সংখ্যক বিমান চালানো সম্ভব হচ্ছে না। তাই প্রয়োজন নতুন বিমানবন্দর। আর এর জন্য অনেক চিঠিপত্র এবং পরিকল্পনা কেন্দ্র ও রাজ্যের মধ্যে আদানপ্রদান হয়েছে। কিন্তু রাজ্য সরকারের তরফে কোনও পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি।’

অসামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্রীর তাই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে আবেদন, যদি তিনি রাজ্যের উন্নয়ন এবং বিকাশ চান, তাহলে পরিকাঠামো সংক্রান্ত ফাইলগুলি দ্রুত ছেড়ে দিন। সেই সঙ্গে সিন্ধিয়া সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমরা মনেপ্রাণে চাই, বিমান পরিবহণ ক্ষেত্রে এগিয়ে চলুক বাংলা। কিন্তু এটা রাজ্য সরকারের সাহায্য ছাড়া সম্ভব নয়। বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর কাছে আমার বিশেষ আবেদন, তিনি যেন ফাইলগুলো আটকে না রেখে দ্রুত ছেড়ে দেন।’ সিন্ধিয়া জানান, ‘মেট্রোপলিটন শহরে একটি বিমানবন্দর তৈরি করতে ২ লক্ষ স্কোয়ার মিটার জমি দরকার।’ এদিকে, রাজ্য সরকার কলকাতা বিমানবন্দরের কাছে ভাঙড়ে প্রস্তাবিত নতুন বিমানবন্দর তৈরির জন্য জমি খুঁজছে।

বর্তমানে নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বোস বিমানবন্দরে প্রতিদিন প্রায় ৮ হাজার ৬০০ যাত্রী যাতায়াত করার মতো পরিকাঠামো রয়েছে। অসামরিক বিমান পরিবহণমন্ত্রী বলেন, ‘দিন দিন যাত্রী সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাই প্রতিদিন ১০ থেকে ১১ হাজার যাত্রী যাতায়াত করতে পারে এরকম নতুব টার্মিনাল বিল্ডিং তৈরি হওয়া উচিতl’ সেই সঙ্গে তিনি জানান, বাংলার উন্নয়ন নিয়ে কেন্দ্রের অনেক পরিকল্পনা রয়েছে। নেতাজি সুভাষচন্দ্র বোস আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের উন্নয়নে তাঁর মন্ত্রক ৭০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে। যার মধ্যে শুধু ৩০০ কোটি টাকা দিয়ে একটি টেকনিক্যাল ব্লক-কন্ট্রোল টাওয়ার তৈরি হবে। সেই সঙ্গে ২৬৫ কোটি টাকা ব্যয়ে তৈরি হবে একটি ট্যাক্সিওয়ে। মেট্রোকে বিমানবন্দরের টার্মিনাল বিল্ডিংয়ের সঙ্গে জুড়তে ১১০ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে বলে জানান সিন্ধিয়া।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়া

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories