Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

অবিবাহিত হয়েও লতা মঙ্গেশকর কেন পরতেন সিঁদুর ? কারণ জানলে মুগ্ধ হবেন

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

মাত্র পাঁচ বছর বয়সেই বাবার কাছে তালিম নেওয়া শুরু করেছিলেন গান এবং অভিনয়ের। মাত্র ১৩ বছর বয়সেই হারিয়ে ফেলেছিলেন বাবাকে, তারপর কাঁধে এসে পড়ে সমগ্র পরিবারের দায়িত্ব। উপার্জনের জন্য প্রথমে বেছে নিয়েছিলেন গানের জগতকে, তার পরেই সেখান থেকে তিনি হয়ে গেলেন সুর সম্রাজ্ঞী। এক কথায় সারা ভারতবাসীর মন জয় করে নিয়েছেন অথচ জানেন কি এই মহান শিল্পী বহু বাংলা গানের জন্য পারিশ্রমিক পর্যন্ত নেননি। তাঁর প্রয়াণ সত্যি কিছুতেই মেনে নেওয়ার নয়।

জাদুতে ভরা অসংখ্য সুরেলা গান তিনি ভারতবাসীর জন্য রেখে গিয়েছেন। তিনি সর্বদা কপালে সিঁদুর ব্যবহার করতেন। তাঁকে একবার এক শিল্পী জিজ্ঞাসা করেছিলেন অবিবাহিত হয়েও কেন সিঁদুর ব্যবহার করেন ? সেই প্রশ্নের উত্তরে যা বলেছিলেন শুনলে সত্যি মুগ্ধ হবেন। এই মহান শিল্পীর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন ভারতের অন্যতম একজন শিল্পী তাবাসসুম । পাশাপাশি শেয়ার করেছেন লতাজীর সঙ্গে ছবি ।

তিনি ট্যুইটারে একটি ছবি ট্যুইট করে বলেছেন, লতা দিদির মতো কেউ ছিল না, কেউ নেই এবং কেউ থাকবে না। বড় বহিন, যার সঙ্গীত দিয়েছেন হুসন লাল ভগতরাম। এই গানের রেকর্ডিংয়ের সময় শামশাদ বেগম, গীতা দত্ত এবং তাবাসসুম উপস্থিত ছিলেন। লতা মঙ্গেশকরকে প্রায়ই কপালে সিঁদুর লাগাতে দেখা যেত। কেন সিঁদুর লাগান তা নিয়ে এক গল্পও আছে। এ সম্পর্কে প্রখ্যাত শিল্পী তাবাসসুম একবার লতাজীকে প্রশ্ন করেছিলেন। তাবাসসুম আরও জানান, এ নিয়ে লতা মঙ্গেশকরকে জিজ্ঞেস করেন, কার নামে এই সিঁদুর লাগান। এর উত্তরে লতা মঙ্গেশকর বলেন, এটা সঙ্গীতের নামে। আসলে সঙ্গীতের সঙ্গে লতা মঙ্গেশকরের আত্মা সর্বদা একীভূত ছিল। ভারতের সঙ্গীত জগত লতা মঙ্গেশকরকে ছাড়া প্রায় অনেকাংশেই শূণ্য।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়া

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories