Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

জলপাইগুড়িতে তরুণকে অপহরণের অভিযোগ, গ্রেপ্তার তৃণমূল নেতা

।।প্রথম কলকাতা।।

এক তরুণকে অপহরণ করার অভিযোগ উঠল দুই তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে। টাকার লোভেই এই অপহরণের ফন্দি তাদের। জানা যায়, অপহরণকারীরা সকলেই শাসক দলের কর্মী। অপহৃত যুবকের পরিবার লিখিত অভিযোগ দায়ের করে জলপাইগুড়ি থানায়। নিউ জলপাইগুড়ি থানার পুলিশ অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নেমে গ্রেফতার করে তিনজনকে। অবশেষে উদ্ধার করা হয় অপহৃত তরুণকে। পুলিশ সূত্রে খবর, রতন পাল, তপন দাস এবং রাজা সিং এই তিনজন এই ভারতনগরের বাসিন্দা। রতন পালের একটি ক্যাফে রয়েছে যেখানে প্রায়ই আসতেন ওই তরুণ।

ক্যাফেতে আসা ওই তরুণকে অপহরণ করার ফন্দি আঁটে এই তিনজন। গত ১৩ই জানুয়ারি নিখোঁজ হয় তরুণটি। ১৪ ই জানুয়ারি নিখোঁজ হওয়ার জন্য তরুণের পরিবারের সদস্যরা নিউ জলপাইগুড়ি থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করতে আসেন। কিন্তু সেই সময়ই তরুণের মুক্তির জন্য টাকা দাবি করে ফোন করে অপহরণকারীরা। সেদিন লিখিত অভিযোগ দায়ের না করলেও ফের ১৫ ই জানুয়ারি সম্পূর্ণ ঘটনা জানিয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয় নিউ জলপাইগুড়ি থানাতে।সেই অভিযোগ অনুযায়ী তদন্তে নামে পুলিশ। গ্রেফতার করা হয় রতন পাল সহ আরও তিনজনকে।

প্রথমে তাঁরা অস্বীকার করলেও পরে পুলিশি জেরার মুখে সবকিছুর খোলসা করে। তাদের কাছ থেকে পুলিশ জানতে পারে অপহৃত ওই তরুণকে দেশবন্ধু পাড়ার একটি বাড়িতে আটক করে রেখেছে তাঁরা। তারপর পুলিশ সেখানে গিয়ে তরুণকে উদ্ধার করে। যদিও এই ঘটনাকে ঘিরে যথেষ্ট ছি ছি রব উঠেছে গোটা এলাকা জুড়ে। রতন পাল এবং তাঁর সাথীরা শিলিগুড়ি ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূলের কর্মী সমর্থক বলেই জানা যায়। এই প্রসঙ্গে ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল প্রার্থী প্রত্যুল চক্রবর্তী বলেন, অপহরণের সাথে যারা যুক্ত রয়েছে তাঁরা অবশ্যই শাস্তি পাবে। সমস্ত কিছুই করা হবে আইনি পথে। জেলা স্তরের যুবনেতা ছিল রতন পাল। প্রয়োজন পড়লে দলীয় স্তরেও পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে বলে জানান তিনি।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories