Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

তৃণমূলের গোষ্ঠী সংঘর্ষ পশ্চিম বর্ধমানে, উত্তেজনা এলাকায়

।। প্রথম কলকাতা।।

তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব ঘিরে ফের উত্তেজনা ছড়ালো পশ্চিম বর্ধমান জেলার কাঁকসার আনন্দপুর গ্রামে। মূলত তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর মধ্যে বাঁধ সংস্কারের কাজকে কেন্দ্র করে বচসা বাধে। কিন্তু তা পরিণত হয় সংঘর্ষে। দুই পক্ষেরই বেশ কয়েক জন গুরুতর জখম হয়েছে বলে জানা যায়। তাদের মধ্যে গুরুতর জখম হয়েছেন একজন পুলিশ কর্মীও। পরিস্থিতি হাতের নাগালের বাইরে চলে যেতে ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছায় পুলিশ। কিন্তু পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করার জন্য শেষে বিশাল পুলিশবাহিনী মোতায়েন করা হয়।

কাঁকসার আমলাজোরা গ্রাম পঞ্চায়েতের উপপ্রধান হারু বাউরী গুরুতর আহত হয়েছেন এই ঘটনায়। তিনি জানান, গ্রাম পঞ্চায়েতের তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মীরা মূলত দুটি গোষ্ঠীতে বিভক্ত হয়ে গিয়েছে। পূর্বে যে গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান ছিলেন তিনি বেআইনিভাবে সরকার অনুমোদিত বাঁধ সংস্কারের টাকা নয়ছয় করেছেন বলে অভিযোগ জানান হারু বাউরী। তিনি বলেন, এর পূর্বেও যখন বাঁধ সংস্কার করা হয় তখন সেই বাঁধের মাটি বিক্রি করেছিল গ্রামের প্রাক্তন প্রধান। সেই টাকার কোনো হিসাব দিতে পারেনি সে গ্রামবাসীদের। এমনকি গ্রামবাসীদের কে না জানিয়ে নিজের দলের সঙ্গে আলোচনায় বসে এই সব কাজ চালিয়ে গিয়েছে সে। কিন্তু এখন যেহেতু গ্রামের সকল জনসাধারণকে নিয়ে সুষ্ঠুভাবে কাজ পরিচালনা করতে চাওয়া হচ্ছে তখন সে বিভিন্ন ভাবে বাধা দেওয়া চেষ্টা করছে।

তৃণমূলের অপর গোষ্ঠীর তরফ থেকে অভিযোগ আসে, গ্রামের উপপ্রধান বাঁধ সংস্কারের কাজে বাধা হানছে। তাই তাঁর প্রতিবাদ করতে গিয়েই শেষমেষ সংঘর্ষে পরিণত হয় এই ঘটনা। এদিন প্রায় তৃণমূলের গোষ্ঠী সংঘর্ষে ১০ থেকে ১৫ জন গুরুতর আহত হয়। তাদের সকলকে নিয়ে আসা হয়েছে পানাগড় ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে। এক গোষ্ঠী অপর গোষ্ঠীকে দোষারোপ করতে থাকায় সঠিক কী কারণে এ সংঘর্ষ শুরু হয়েছিল তা স্পষ্ট হয়ে উঠেনি এখনও। তবে গ্রামের পরিস্থিতি যথেষ্ট উত্তপ্ত থাকায় কাঁকসায় বিশাল পুলিশবাহিনী মোতায়েন রয়েছে এখনও।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories