Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

মিডল অর্ডার সাফল্য পায়নি, প্রথম ম্যাচের হার থেকে শিক্ষা নিতে চাইছেন অধিনায়ক কেএল রাহুল

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

হ্যামস্ট্রিংয়ে চোট পেয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে দুই ফরম্যাটের সিরিজ থেকেই ছিটকে গিয়েছেন রোহিত শর্মা। প্রোটীয়দের বিরুদ্ধে তিন ম্যাচের সিরিজে অধিনায়কের আর্মব্যান্ড উঠেছে কেএল রাহুলের হাতে। তবে ওডিআই অধিনায়ক হিসাবে শুরুটা ভালো হয়নি। গতকাল দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে ৩১ রানের ব্যবধানে হারের মুখ দেখেছেন রাহুলরা। সেই হার থেকে শিক্ষা নিয়েই ঘুরে দাঁড়ানোর পরিকল্পনা করছে সফরকারী দল।

পার্লের বোল্যান্ড পার্কে আয়োজিত প্রথম ম্যাচে রাসি ভ্যান ডের দুসেন ও অধিনায়ক বাভুমার জোড়া শতরানে ২৯৬ রান তোলে দক্ষিণ আফ্রিকা। শুরুটা ভালো করলেও প্রোটীয় বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ের সামনে ম্যাচ থেকে হারিয়ে গিয়েছেন রাহুলরা। ধাওয়ান (৭৯), কোহলি (৫১)-রা চেষ্টা করলেও মিডল অর্ডার ব্যাটাররা রান পাননি। শেষের দিকে ৪৩ বলে ৫০ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলে ভারতকে ২৬৫ রানে পৌঁছে দিয়েছিলেন শার্দূল ঠাকুর। চলতি সফরে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে শেষ তিনটি ম্যাচেই (দুটি টেস্ট, একটি ওয়ানডে) হারের মুখ দেখতে হয়েছে ভারতকে।

সিরিজে ০-১ পিছিয়ে পড়লেও ঘাবড়াচ্ছেন না ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক কেএল রাহুল। ম্যাচ শেষে বলেন – ” ভালো খেলা হয়েছে। এই ম্যাচ থেকে অনেক কিছু শেখার আছে। শুরুটা ভালোই করেছিলাম কিন্তু মাঝের ওভারগুলিতে উইকেট তুলতে পারিনি। মাঝের ওভারগুলিতে কিভাবে উইকেট তুলে প্রতিপক্ষকে রোখা যায় তা নিয়ে ভাবনাচিন্তা করতে হবে। আমাদের মিডল অর্ডারও রান পায়নি। প্রাথমিক ভাবে মনে হয়েছিল আমরা সহজেই এই রান তাড়া করতে পারব। দক্ষিণ আফ্রিকা দুর্দান্ত বোলিং করেছে। নির্নায়ক মুহূর্তগুলিতে উইকেটও তুলে নিয়েছে। “

বোল্যান্ড পার্কের পিচ নিয়ে রাহুল জানান – ” আমি তো কুড়ি ওভারের পর ব্যাট করিনি তাই উইকেটের চরিত্র আমূল বদলে গিয়েছিল কিনা জানা সম্ভব নয়। বিরাট ও শিখর জানায় বাইশ গজে কিছুটা সময় কাটিয়ে নিলে পিচ ব্যাটিংয়ের জন্যে উপযুক্ত। কিন্তু আমাদের দূর্ভাগ্য যে সেরকম কোনও পার্টনারশিপ গড়তে পারিনি। ” রাসি ভ্যান ডের দুসেন ও বাভুমার ম্যাচ জেতানো পার্টনারশিপের প্রশংসা করে ভারতীয় অধিনায়ক বলেন – ” ওরা সত্যিই দুর্দান্ত ব্যাটিং করেছে। আমাদের বোলারদের উপর চাপ তৈরি করতে পেরেছিল। মাঝের ওভারগুলিতে উইকেট তুলতে পারিনি। দক্ষিণ আফ্রিকা অতিরিক্ত ২০ রান তুলে ফেলে। আমরা যদি মিডল অর্ডারে পার্টনারশিপ গড়তে পারতাম তাহলে ম্যাচের ফল হয়তো অন্যরকম হতো। প্রতিটা ম্যাচই আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ। মাঠে নেমে নিজেদের সেরাটা দেওয়াই দলের লক্ষ্য। “

Categories