Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

অব্যাহত বিজেপির গোষ্ঠী কোন্দল, জেলা সভাপতির বৈঠকে গড় হাজির বিধায়ক

।। প্রথম কলকাতা।।

আগামী ফেব্রুয়ারি মাসের বকেয়া ১০৮ টি পুরসভার ভোট হবে বলে জানানো হয়েছে। সেইমতো পুরভোটের তালিকায় রয়েছে বনগাঁও। বনগাঁ পৌরসভার ভোটের প্রস্তুতি নিয়েই বুধবার একটি বৈঠকের আয়োজন করেছিলেন বিজেপি জেলা সভাপতি। গান্ধী পল্লীতেই বৈঠকের আয়োজন করা হয় কিন্তু বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন না খোদ বনগাঁর উত্তরের বিধায়ক অশোক কীর্তনীয়া। যা নিয়ে ফের তৈরি হয়েছে জল্পনা। পূর্ব পরিকল্পিত কর্মসূচির কারণে উপস্থিত থাকা সম্ভব হয়নি। এমনটাই দাবি বনগাঁ উত্তরের বিধায়কের। তবে এই ব্যস্ততার মধ্যে কতটা সত্যতা আছে তা জানা মুশকিল।

বনগাঁর পৌরসভার অন্তর্গত ২২ টি ওয়ার্ড কে দুটি ভাগে বিভক্ত করে বনগাঁ উত্তর এবং দক্ষিণ পূর্ব মন্ডল গঠন করা হয়েছে। সেই পুর মন্ডলের বৈঠকে বিভিন্ন বুথ থেকে অন্যান্য কর্মী সদস্যরা এলেও বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন না সেদিন বনগাঁ উত্তরের বিধায়ক অশোক কীর্তনীয়া। এ প্রসঙ্গে বনগাঁর বিজেপির সাংগঠনিক জেলার সভাপতি রাম পদ দাস জানিয়েছেন, বিধায়ক হয়তো তাঁর ব্যস্ততার কারণে এখানে উপস্থিত থাকতে পারেননি। যদিও বৈঠকে অনুপস্থিতির নিয়ে বিশেষ কিছু প্রতিক্রিয়া দিতে চাননি বিধায়ক।

প্রসঙ্গত, বঙ্গ বিজেপির জেলাগুলির সাংগঠনিক পরিবর্তনের পর বনগাঁ জেলার সংগঠনের দায়িত্ব পেয়েছিলেন রামপদ দাস। কিন্তু এই পদ পরিবর্তনের খুব একটা খুশি ছিলেন না শান্তনু ঠাকুর। এরপর শান্তনু ঠাকুর এর নেতৃত্বে একাধিক নেতৃত্বকে নতুন সংগঠনের বিপক্ষে যেতে দেখা গিয়েছে। তাদের মধ্যে রয়েছেন অশোক কীর্তনীয়া এবং দেবদাস মন্ডলও। এ থেকেই অনুমান করা যায় রামপদ দাসের নেতৃত্বে যে বৈঠকের আহ্বান জানানো হয়েছিল তাদেরকে, তা তাঁরা অত্যন্ত কৌশলে এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলেন।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories