Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

পাকিস্তান, নেপালের দলকে উড়িয়ে ২০২১ ওয়ার্ল্ড ই-স্পোর্টস কাপ জয়ী ভারতের টোটাল গেমিং

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

আন্তর্জাতিক মঞ্চে দুরন্ত পারফর্ম করে প্রথমবার আয়োজিত ওয়ার্ল্ড ই-স্পোর্টস কাপে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ভারতের টোটাল গেমিং। ত্রিদেশীয় প্রতিযোগিতায় ভারত ছাড়াও পাকিস্তান ও নেপালের নামী দল অংশগ্রহণ করেছিল। তবে গ্লোবাল ফাইনালে বাকিদের টেক্কা দিয়েছে ভারতীয় দলগুলিই। প্রতিযোগিতার প্রথম চারটি স্থানই দখল করেছে ভারতের ই-স্পোর্টস দল।

একটি স্মার্টফোন প্রস্তুতকারক সংস্থার স্পনসরশিপে প্রথমবারের জন্যে ত্রিদেশীয় ওয়ার্ল্ড ই-স্পোর্টস কাপ আয়োজিত হয়। প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের জন্যে ভারত, পাকিস্তান ও নেপাল থেকে প্রায় ১.২ মিলিয়ান গেমার নাম নথিভুক্ত করিয়েছিলেন। ইন্ডিয়া টুডে গেমিং নামের ইউটিউব চ্যানেলে সরাসরি সম্প্রচার দেখেছেন বিপুল সংখ্যক নেটিজেন। গ্লোবাল ফাইনালে অংশ নিয়েছিল ভারত, পাকিস্তান ও নেপালের নামী ফ্রি-ফায়ার দল। পাঁচ দিন ধরে চলার ফাইনালের প্রথম দিন থেকেই বাকি অন্য দেশের দলগুলির উপর দাপট দেখিয়েছে ভারতের টোটাল গেমিং, চেমিন ই-স্পোর্টস, ওরাংউটান ই-স্পোর্টস ও অ্যারো ই-স্পোর্টস।

অন্য ভারতীয় দলগুলিকে টেক্কা দিয়ে বাজিমাৎ করেছে টোটাল গেমিং। নামজাদা এই ই’স্পোর্টস দলের হয়ে প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছিলেন অজয় শর্মা (অধিনায়ক), হোরা ভেটকুমার, নরাই যাদব, দক্ষ গর্গ, রোহিত শরাফ (সাব)। ত্রিদেশীয় প্রতিযোগিতার ফাইনালে ৩৪২ পয়েন্ট সংগ্রহ করে প্রথম স্থান পেয়েছে টোটাল গেমিং। এই ৩৪৪ পয়েন্টের মধ্যে র‍্যাঙ্ক পয়েন্ট ১৯৮ ও কিল পয়েন্ট ১৪৪। চ্যাম্পিয়ন দল অর্থাৎ টোটাল গেমিং পাচ্ছে ৩৫ লক্ষ ভারতীয় টাকার আর্থিক পুরস্কার। দ্বিতীয় স্থান পাওয়া চেমিন ইস্পোর্টস ও তৃতীয় স্থানাধিকারী ওরাংউটান এলিট পাচ্ছে যথাক্রমে ১৫ ও ৮ লক্ষ টাকার আর্থিক পুরস্কার।

গ্লোবাল ফাইনালে নজর কেড়ে প্রতিযোগিতার সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছেন দক্ষ গর্গ। ফ্রি ফায়ার দুনিয়ায় ‘মাফিয়া’ (গেমনেম) বলে পরিচিত দক্ষ ৫৩ টি কিল করেছেন। আর্থিক পুরস্কার হিসাবে দক্ষ পেয়েছেন ৫০,০০০ টাকা (ভারতীয় টাকা)।

ওয়ার্ল্ড ই-স্পোর্টস কাপ ২০২১ | লিডারবোর্ড

১. টোটাল গেমিং (ভারত) – ৩৪২ পয়েন্ট
২. চেমিন ই-স্পোর্টস (ভারত) – ৩১৪ পয়েন্ট
৩. ওরাংউটান ই-স্পোর্টস (ভারত) – ৩০৪ পয়েন্ট
৪. অ্যারো ই-স্পোর্টস (ভারত) – ২৯৯ পয়েন্ট
৫. টুবি গেমার্স (নেপাল) – ২৭৩ পয়েন্ট
৬. লেজেন্ড স্টাইলস (পাকিস্তান) – ২৫৮ পয়েন্ট
৭. দাদা গ্যাং (নেপাল) – ২২০ পয়েন্ট
৮. কেএম ব্রাদারহুড (নেপাল) – ২১৯ পয়েন্ট

Categories