Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

‘কোহলিরা ম্যাচটার কথাই ভুলে গিয়েছিল ‘, বিতর্কিত ডিআরএস নিয়ে মুখ খুললেন এলগার

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

কেপটাউন টেস্টের ডিআরএস বিতর্ক ও ভারতীয় দলের ক্ষোভে ফেটে পড়া নিয়ে উথালপাথাল ক্রিকেট দুনিয়া। অধিনায়ক কোহলি সহ ভারতীয় দলের বেশ কয়েকজন সদস্য স্ট্যাম্প মাইক্রোফোনে সরাসরি আয়োজক দেশের সম্প্রচার সংস্থার বিরুদ্ধে বিষেদগার করেছিলেন। বিশ্বের এক নম্বর টেস্ট দলের বিরুদ্ধে দুরন্ত প্রত্যাবর্তন ঘটিয়ে সিরিজ জয়ের জন্যে সেই ডিআরএস বিতর্ককেই কৃতিত্ব দিচ্ছেন ডিন এলগার।

সেঞ্চুরিয়ন টেস্ট হেরে ০-১ ব্যবধানে পিছিয়ে পড়ার পরও অনভিজ্ঞ ক্রিকেটারদের নিয়ে অসাধ্যসাধন করে নায়কের মর্যাদা পাচ্ছেন প্রোটীয় অধিনায়ক ডিন এলগার। মার্কো জানসেন, কিগান পিটারসেন তো বটেই দুরন্ত সিরিজ জয়ের জন্যে প্রোটীয় অধিনায়ক ডিআরএস বিতর্কের অবদানের কথা জানিয়েছেন। এলগার জানান, ডিআরএস বিতর্কের জেরেই ম্যাচ থেকে মনসংযোগ হারিয়ে ফেলে ভারতীয় দল। সেই সুযোগ কাজে লাগিয়ে কোহলিদের ম্যাচ থেকে ছিটকে দিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

সিরিজের ভাগ্য নির্ধারক টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে কোহলিদের ১৯৮ রানে আটকে রাখার পর জয়ের জন্যে ২১২ রানের লক্ষ্য নিয়ে ব্যাট করতে নেমেছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। বিতর্কিত ঘটনাটি ঘটে প্রোটীয় ইনিংসের ২১তম ওভারে। ওই ওভারে ভারতীয় অফস্পিনার অশ্বিনের চতুর্থ বলটি এলগারের প্যাডে আছড়ে পড়েছিল। উইকেটের সামনে পা থাকায় সফরকারী দলের আবেদনে সাড়া দিয়ে এলবিডব্লু আউট দেন আম্পায়ার মারায়েস ইরাসমাস। শেষ পন্থা হিসাবে ডিআরএসের দারস্থ হয়েছিলেন এলগার। হকআই প্রোজেকশানে দেখা যায় বলটি উইকেটে লাগত না। নিশ্চিত উইকেট প্রাপ্তির উদযাপনে মেতে ওঠা ভারতীয় দল হতভম্ব হয়ে যায়। ভিডিও আম্পায়ার সিদ্ধান্ত বদলের নির্দেশ দিলেও কোহলিরা বিষয়টি মেনে নিতে পারেননি। এরপর অধিনায়ক কোহলি সহ ভারতীয় দলের একাধিক সিনিয়র সদস্য স্ট্যাম্প মাইক্রোফোনে কটাক্ষ করেন। তাদের অভিযোগের তীর ছিল আয়োজক দেশের সম্প্রচার সংস্থা সুপারস্পোর্টসের দিকে।

শুক্রবার মধ্যাহ্নভোজের বিরতির পর সাত উইকেট হাতে রেখে জয়ের জন্যে প্রয়োজনীয় রান তুলে নেয় দক্ষিণ আফ্রিকা। অবিশ্বাস্য সিরিজ জয়ের পর ডিআরএস বিতর্ক তারিয়ে তারিয়ে উপভোগ করছেন এলগার। প্রোটীয় অধিনায়ক বলেন – ” ওই বিতর্ক আমাদের জন্যে বিশেষ সুযোগ তৈরি করে দিয়েছিল। বিশেষ করে বৃহস্পতিবার আমরা বেশ সহজেই রান পেয়ে যাই। জয়ের জন্যে যে রানটা প্রয়োজন ছিল তার ব্যবধান কমিয়ে নিয়েছিলাম। বিতর্কটা আমাদের জন্যে কাজে দিয়েছে। ঘটনাটি ঘটার পর বেশ কিছুক্ষণের জন্যে ওরা ম্যাচটার কথাই ভুলে গিয়েছিল। খেলার থেকে ওরা তখন আবেগ দেখাতেই ব্যস্ত হয়ে পড়ে। “

বিতর্কের বিষয়ে করা প্রশ্নের উত্তরে এলগার বলেন – ” সত্যিই বিতর্কটা ভীষণ পছন্দ হয়েছে। ওরা যেভাবে চাইছিল সেইভাবে ম্যাচ গড়ায়নি ফলে চাপের মুখে পড়ে। শেষ কয়েক মাস ধরে ওরা একটি নির্দিষ্ট ছন্দের ক্রিকেট খেলে অভ্যস্ত হয়ে উঠেছে। এখানে ছন্দপতন ঘটতেই চাপে পড়ে যায়। “

Categories