Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

Dilip Ghosh: ‘কমিশনের শিরদাঁড়া নেই ,ভোট বন্ধ করাতে পারছে না’, কটাক্ষ দিলীপের

1 min read

।।প্রথম কলকাতা।।

বিধাননগর পৌরনিগমের ৪ নম্বর ওয়ার্ড সহ নারায়ণপুরের বিস্তীর্ণ এলাকায় দলীয় বিজেপি কর্মীদেরকে সঙ্গে নিয়ে প্রচার সারলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh) । রাজ‍্যে প্রতিদিন বাড়ছে করোনা। এ পরিস্থিতিতে জনস্বার্থের কথা মাথায় রেখে প্রয়োজনে পৌর ভোট পেছানোর পক্ষেই মত দিল আদালত। পুরভোট চার থেকে ছয় সপ্তাহ পিছনো যায় কিনা সেই বিষয়ে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে কমিশনকে সিদ্ধান্ত নিতে নির্দেশ হাইকোর্টের । এই বিষয়ে প্রচারে বেরিয়ে দিলীপ ঘোষ জানান ‘কাল থেকে আমরা শুনছি ভোট পিছনে উচিত কি উচিত নয় কে পিছবে স্থগিত করবে? নির্বাচন কমিশন ভোট করায়। তারা ডিসিশন নিতে পারছে না । রাজ্য বা তৃণমূল পার্টি ভোট করতেই চাইছে তাহলে ভোট বন্ধ করবে কে? প্রার্থী মারা গেলে ভোট কমিশন বন্ধ করে তাহলে কমিশন কেন ডিসিশন নিচ্ছে না। কমিশনের কোনো অধিকার নেই, ক্ষমতা নেই শিরদাঁড়া নেই তাই তারা ডিসিশন নিতে পারছে না।

আদালত বুঝতে পেরেছে ভোট হওয়ার মতো পরিস্থিতি নেই যারা সিনিয়র সিটিজেন তারা এমনিতেই অসুস্থ কিসের ভরসায় বেরোবেন বেরোলে যদি অঘটন ঘটে কে দায়িত্ব নেবে তাহলে ভোট সফল হবে কি করে। কয়েকজনকে নিয়ে ভোট করে জিতে যাওয়ার তালে আছে শাসকদল। সুযোগ এসেছে রাজ্য নির্বাচন কমিশন প্রমাণ করুক তাদের শিরদাঁড়া আছে এক থেকে দেড় মাস পিছিয়ে দেওয়া উচিত যতক্ষণ না পরিস্থিতি কন্ট্রোলে আসছে।বিধাননগর পুর নিগমের ভোট প্রসঙ্গে বলেন বিধান নগরে আমাদের কর্মীদের মারা হয়েছে, দমদমে মারা হয়েছে সব জায়গা মারপিট করা হচ্ছে ।ঐ দলে একজন বলছে নির্বাচন হোক আর একজন বলছে নির্বাচনের দরকার নেই ।দল ছাড়া সরকার চলে না সরকার ছাড়া নির্বাচন কমিশন চলে না কারা চালায় আমরা জানি সেই জন্য নির্বাচন কমিশনকে ডিসিশন নিতে হবে।’ উত্তরবঙ্গের ময়নাগুড়িতে রেল দুর্ঘটনায় সিবিআই তদন্তের দাবি জানিয়েছেন বিজেপি নেত্রী তথা রাজ্যসভার সাংসদ রূপা গঙ্গোপাধ্যায়। তিনি প্রশ্ন তুলেছেন ট্রেন কি নিজে নিজেই বেলাইন হয়। এই প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘উনি কি বলেছে তা সরকার দেখবে।’

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories