Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

বুস্টার ডোজের সাইড এফেক্ট গুলি জানেন কি ? করোনা রুখতে কতটা কাজের ?

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

সারাবিশ্বে ক্রমবর্ধমান করোনা আক্রান্তের পরিপ্রেক্ষিতে গত ১০ জানুয়ারি থেকে দেশে গুরুতর অসুস্থ বৃদ্ধদের করোনা সতর্কতা ডোজ (বুস্টার) অর্থাৎ তৃতীয় ডোজ দেওয়া শুরু হয়েছে। স্বাস্থ্যকর্মী এবং ফ্রন্টলাইন কর্মীদেরও ভ্যাকসিনের তৃতীয় ডোজ দেওয়া হচ্ছে। প্রথম দিনেই প্রায় ১০ লাখ মানুষকে বুস্টার ডোজ দেওয়া হয়েছে। এই বুস্টার ডোজ নিয়েই দেখা দিচ্ছে সাধারণ মানুষের মধ্যে নানান সংশয়। আজকের প্রতিবেদনে তেমন কিছু সংশয়ের রইল উত্তর।

বুস্টার ডোজে কোন ভ্যাকসিন দেওয়া হবে ?

বুস্টার ডোজে আপনাকে একই ভ্যাকসিন দেওয়া হবে, যা আপনি আগের দুই ডোজে পেয়েছেন। উদাহরণস্বরূপ, আপনি যদি Covaxin এর ২টি ডোজ নিয়ে থাকেন, তাহলে বুস্টার ডোজেও Covaxin থাকবে। আপনি যদি Covishield এর ২ টি ডোজ নিয়ে থাকেন, তাহলে আপনি এর একটি বুস্টার ডোজ হিসেবে পাবেন।

•সমস্ত বয়স্ক মানুষরাই কি বুস্টার ডোজ পাবেন?

না, সব বয়স্ক মানুষ করোনা ভ্যাকসিনের তৃতীয় ডোজ নিতে পারবেন না। স্বাস্থ্য মন্ত্রকের মতে হৃদরোগ, ডায়াবেটিস, কিডনি বা অন্য কোনো গুরুতর রোগে ভুগছেন এমন ধরনের বয়স্কদের তাদের ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করার পরেই বুস্টার ডোজ নেওয়া উচিত।

•কত দিনের ব্যবধানে বুস্টার ডোজ নেওয়া যাবে ?

করোনা ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ এবং বুস্টার ডোজের মধ্যে নয় মাসের ব্যবধান থাকতে হবে। অর্থাৎ, আপনি যদি নয় মাস আগে দ্বিতীয় ডোজ নিয়ে থাকেন, তাহলে আপনি একটি বুস্টার ডোজ পেতে পারেন। যদি এটি নয় মাসের কম হয়ে থাকে, আপনি তৃতীয় ডোজ নিতে পারবেন না।

বুস্টার ডোজ গ্রহণকারী বয়স্ক ব্যক্তিদের তাদের ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করা প্রয়োজন, তবে ডাক্তারের শংসাপত্রের প্রয়োজন হবে না। অর্থাৎ, ৬০ বছরের বেশি বয়সী বয়স্ক ব্যক্তিরা ডাক্তারের সার্টিফিকেট ছাড়াই বুস্টার ডোজ নিতে পারেন।

•এই ডোজ নিতে কত টাকা খরচ হবে?

আপনি যদি সরকারি হাসপাতালে করোনা ভ্যাকসিনের বুস্টার ডোজ নিতে যান, তাহলে আপনাকে বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। এর জন্য টাকা দিতে হবে না। অবশ্যই মনে করে আপনার সাথে ভোটার আইডি কার্ড, আধার কার্ড, পাসপোর্ট বা ড্রাইভিং লাইসেন্স টিকা কেন্দ্রে নিয়ে যান( যে কোন একটি )। আপনি চাইলে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় কর্তৃক স্বীকৃত যে কোনো নথি নিতে পারেন। গতবারের মতো এবারও টিকা কেন্দ্র থেকে বুস্টার ডোজ নেওয়ার পর আপনার নিবন্ধিত মোবাইল নম্বরে একটি শংসাপত্র আসবে।

•ভ্যাক্সিনেশনের দিন খালি পেটে যাবেন না

বেশিরভাগ মানুষদের হালকা পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হিসেবে জ্বর, মাথাব্যথা, ক্লান্তি, শরীরে ব্যথা এবং ফুলে যাওয়ার মতো সমস্যা দেখা দিতে পারে। চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে ওষুধ সেবন করা যেতে পারে। টিকা দেওয়ার জন্য খালি পেটে যাবেন না। টিকা দেওয়ার পর কিছুক্ষণ খাবার খেতে থাকুন। খাবার খাওয়ার পর ভ্যাকসিন নিন। হাইড্রেশনের জন্য ঘন ঘন জল পান করুন। বেশি করে সহজপাচ্য খাবার খান। ধূমপান এবং অ্যালকোহল পান এড়িয়ে চলুন।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories