Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

ওজন নিয়ন্ত্রণ কিংবা কনকনে শীতে শরীরকে চাঙ্গা রাখবে এককাপ গুড়ের চা!

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

শীতে ঠাণ্ডা-কাশি বা বুকে জমে থাকা কফ বের করতে অনেকেই আদা চা পান করে থাকেন। কিন্তু ওজন বেড়ে যাওয়ার ভয়ে চায়ের সঙ্গে অনেকে আবার চিনি খেতে চাই না। তবে চায়ে চিনির পরিবর্তে গুড় ব্যবহার করলে কেমন হয়? নিশ্চয়ই তা চিনির অপেক্ষায় অনেকাংশে স্বাস্থ্যোপযোগী হবে।

আর যাদের ঘন ঘন চা খাওয়ার অভ্যাস আছে অথচ ডায়াবেটিস নেই তারাও চিনির বিকল্প হিসেবে গুড় খেতে পারেন। আবার যারা ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে বা আপনার মেদ কমাতে চান, তারাও এই গুড়ের চা পান করতে পারেন। তাই সময় করে পরিমাণমতো গুড় দিয়ে দিনে একবার অন্তত গুড়ের চা পান করুন। তাছাড়া শীতকালে শরীর গরম করতে গুড়ের চা টনিকের মত কাজ করে।

জেনে নেই গুড়ের চা খেলে যেসব উপকারিতা মিলবেঃ

  • নিয়মিত গুড়ের চা পান আপনার পাচন তন্ত্র সুস্থ রাখতে সাহায্য করবে। পাশাপাশি বুক জ্বালার সমস্যাও কমাবে। তাছাড়া চিনির তুলনায় এতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ও মিনারেল থাকায় শীতকালে গুড়ের চা পান অনেক উপকারী।
  • চিনির তুলনায় গুড়ে ক্যালোরি কম থাকে, তাই গুড়ের চা পান আপনার ওজন নিয়ন্ত্রণে কাজে দিবে।
  • শীতকালে গুড়ের চা পান শরীর গরম রাখার পাশাপাশি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও বৃদ্ধি করে। তাছাড়া শীতের সর্দি ও কফ থেকে স্বস্তি পেতে গুড়ের চায়ে আদা, গোলমরিচ ও তুলসি পাতা দিয়ে পান করুন।
  • যাদের গলা ও ফুসফুসে বার বার সংক্রমণ হয় তাদের জন্যও এই চা উপকারি।
  • মাইগ্রেন বা মাথা ব্যথার সমস্যা থাকলে গরুর দুধে দিয়ে গুড়ের চা মিশিয়ে পান করতে পারে , তাতে স্বস্তি মিলবে।
  • গুড়ের চায়ে প্রচুর পরিমাণে আয়রন থাকে, যা রক্তের অভাব দূর করে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে। তাছাড়া যাদের পিরিয়ডের সময় ব্যথা অনুভূত হয়, তখন গুড়ের চা পানে ব্যথা কম হয়।
  • পেট পরিষ্কার করতেও সাহায্য করে গুড়ের চা।
  • গুড়ে প্রচুর পরিমাণে ক্যালশিয়াম ও ফসফরাস থাকে যার ফলে গুড়ের চা পানে হাড় মজবুত হয়।

আপডেট থাকতে ফলো করুন আমাদের ইউটিউব , ফেসবুক, ট্যুইটার

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories