Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

প্রেমিকার দুটি হাত নেই, সাত পাকে বাঁধা পড়ে কী বললেন প্রেমিক ?

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

প্রতিবন্ধকতা আসলে মানুষের মানসিকতায় থাকে। নিজেদের দৃষ্টিভঙ্গি এবং মানসিকতা ভালো হলেই কোনো কিছুরই প্রতিবন্ধকতা মনেই হয় না। নজিরবিহীন এক দৃষ্টান্ত দেখা গেল বাংলাদেশের বরিশালে। সেখানেই ঐতিহ্যবাহী শংকরমাঠ চত্বরে হিন্দু রীতি মেনে বিবাহ হলো দুজনের মধ্যে। কিন্তু পাত্রীর দুটি হাত নেই। ছোটবেলায় তিনি বৈদ্যুতিক দুর্ঘটনায় দুটি হাত হারিয়ে ছিলেন। এই সুন্দর বিবাহ অনুষ্ঠানে নিমন্ত্রিত ছাড়াও অন্যান্য বহু মানুষ উপস্থিত ছিলেন এবং নবদম্পতিকে আশীর্বাদ করেন।

জীবনকে থামিয়ে রাখেননি প্রেয়সি!

ছোটবেলায় দুর্ঘটনায় দুই হাত হারালেও পাত্রী প্রেয়সি সাহার জীবন থমকে থাকেনি। তিনি একে একে স্কুলের গন্ডি পেরিয়ে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে জিওলজি ও এনভারমেন্ট এর উপর অনার্স এবং মাস্টার ডিগ্রী কমপ্লিট করেন। বর্তমানে তিনি একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে ভালো পদে কর্মরত। এবার তিনি জীবনের নতুন অধ্যায় শুরু করলেন সুব্রত মিত্রের হাত ধরে। গত বুধবার রাতে সাত পাকে বাঁধা পড়েন সুব্রত মিত্র (Subrata Mitra) এবং প্রেয়সি সাহা(Preyasi Saha)।

কীভাবে সম্পর্ক হল ?

ছোটবেলা থেকেই দুজন দুজনকে চিনলেও, প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে প্রায় পাঁচ বছর ধরে। দুজনেরই গ্রামের বাড়ি পটুয়াখালি। ইউনিভার্সিটিতে পড়ার সময় থেকেই একে অপরের সাথে ফেসবুকের মেসেঞ্জারে কথা বলত। তারপর সেখান থেকেই তৈরি হয় প্রেমের সম্পর্ক। সুব্রত মিত্র নিজেই এই বিয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তার মতে, কোন মানুষের হাত নেই তা কোন প্রবলেম হতে পারে না। তাতে সে বিয়ে করতে পারবে না, তার ফ্যামিলি হবে না ,এমনটা কখনই নয়।

• বহু মানুষের অনুপ্রেরণা প্রেয়সি সাহা

প্রেয়সি সাহা জীবনে বড় হওয়ার পথে কোনদিনও বুঝতে পারেননি ,তিনি বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন। স্কুল, কলেজ এবং কর্ম ক্ষেত্রে বন্ধু, আত্মীয় পরিজন থেকে শুরু করে কলিগরা পর্যন্ত তার সাথে আর পাঁচটা সাধারণ মানুষের মতই ব্যবহার করেন। প্রেয়সি সাহা মনে করেন প্রতিবন্ধীকতা মানুষের দৃষ্টিভঙ্গি এবং মানসিকতায় থাকে। বর্তমান সমাজে দমে না যাওয়া প্রেয়সি সাহা অনেক মানুষের অনুপ্রেরণা হয়ে উঠেছে।

আপডেট থাকতে ফলো করুন আমাদের ইউটিউব , ফেসবুক, ট্যুইটার

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories