Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

‘কেন প্রতিমাসে নবান্নে টাস্ক ফোর্সের মিটিং হচ্ছে না?’, আলুচাষীদের পক্ষে সরব শুভেন্দু

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

কেন্দ্রের প্রকল্পের নাম বদল করে রাজ্যে নিজের নামে চালাচ্ছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee), ফের একবার এই বিষয়ে সরব হলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা তথা নন্দীগ্রামের বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী। এদিন সকালেই তিনি একটি ট্যুইট করেন। তাঁর মতে, মিথ্যাচার করছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ট্যুইটটিতে তিনি প্রাধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী(Narendra Modi), পঞ্চায়েত মন্ত্রী গিরিরাজ সিং(Giriraj Sing) ও রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়কে (Jagdeep Dhankhar) ট্যাগও করেছেন।

এবার আলুচাষীদের পক্ষে সরব হলেন শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari)। এদিন তিনি বলেন, “আমাদের রাজ্যের মালদা, কোচবিহার থেকে হুগলী, পূর্ব বর্ধমান, পশ্চিম মেদিনীপুর, বাঁকুড়া জেলার একাংশে কৃষি অর্থনীতির একটা বড়ো স্তম্ভ হল আলু চাষ। এই বিস্তৃর্ণ এলাকায় কৃষকরা অর্থনৈতিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত। এ বছর ব্যাপক প্লাবন হওয়ায় আমন ধান এবং আনাচ প্রায় হয়নি। কিন্তু রাজ্য সরকার কোনো ক্ষতিপূরণ দেয়নি।“ একই সঙ্গে তিনি বলেন, “প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ। নভেম্বর মাসে মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়া সত্ত্বেও তিনি প্রদানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ যোজনাকে আগামী বছর মার্চ পর্যন্ত বহাল রেখেছেন। ফলে চাষীরা মাথা পিছু ৫ কেজি করে চাল অথবা গম পাচ্ছে। এটা বন্ধ হয়ে গেলে দুর্ভিক্ষ হয়ে যেত।“

তিনি আরও সংযোজন করেন, “আলু চাষ নিয়ে কেন্দ্রের দিকে আঙুল দেখাবেন না। কারণ এটা রাজ্যের অধীন। অথচ সরকার তৃতীয় বারের জন্য ক্ষমতায় এলেও নবান্নে টাস্ক ফোর্সের কোনো মিটিং করেননি। কারণ সরকার গোয়া, ত্রিপুরা ঘুরতে ব্যস্ত। আমরা কাল থেকে মুখ্যসচিবের সঙ্গে দেখা করতে চাইছি। কারণ আলুচাষীদের অসুবিধার কথা আমরা তাঁকে জানাতে চাই। আলুচাষীদের শেষ হয়ে যাওয়ার মূল কারণ হল সারের কালোবাজারী। এই কারণে চাষীরা সর্বসান্ত। বাজারে মধ্যবিত্তের যাওয়ার কোনো উপায় নেই। নিম্ন-মধ্যবিত্তের কথা ছেড়ে দিন।“

আপডেট থাকতে ফলো করুন আমাদের ইউটিউব , ফেসবুক, ট্যুইটার

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম

Categories