Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

সকালে সাউদি, বিকালে ইয়ং, ঘরের মাঠেই কিউয়ি দাপটে কোনঠাসা ভারত

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

গতকাল শ্রেয়স আইয়ার – রবীন্দ্র জাদেজার যুগলবন্দি দেখে বেশ স্বস্তিতেই ছিলেন ভার‍তীয় ক্রিকেট অনুরাগীরা। দ্বিতীয় দিনে উইলিয়ামসনেরা প্রমাণ করেছেন কেন তিন ফরম্যাটের ক্রিকেটেই বিশ্বের অন্যতম শ্রেষ্ঠ দল নিউজিল্যান্ড। সদ্য সমাপ্ত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনাল খেলবার তিনদিনের মধ্যে ভারত সফরে এসে টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে নেমেছিলেন সাউদিরা। সেই সিরিজে রোহিতবাহিনীর কাছে হোয়াইটওয়াশ হতে হলেও লাল বলের ক্রিকেটে ভারতকে প্রায় কোনঠাসা করে ফেলেছেন ল্যাথামরা। সাউদির দাপটে ভারতের প্রথম ইনিংস ৩৪৫ রানে মুড়িয়ে যাওয়ার পর দুর্দান্ত ব্যাটিং করেছেন দুই কিউয়ি ওপেনার। দ্বিতীয় দিনের শেষে বিনা উইকেটে ১২৯ রান তুলে ফেলেছে নিউজিল্যান্ড।

গতকাল ৫০ রান করে অপরাজিত থেকে যাওয়া রবীন্দ্র জাদেজা আজ সকালে কোনও রান যোগ করতে পারেননি। সাউদির বলে বোল্ড হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরেছেন এই বাম হাতি অলরাউন্ডার। ঋষভ পন্থ বিশ্রাম পাওয়ায় কানপুর টেস্টে শিকে ছিঁড়েছে ঋদ্ধিমান সাহার । ১২ বলে ১ রান করে সাউদির শিকার হয়েছেন তিনি। এদিন ১৬তম ভারতীয় ব্যাটার হিসাবে অভিষেক টেস্টেই শতরান করেছেন শ্রেয়স আইয়ার। লালা অমরনাথ, সৌরভ গাঙ্গুলি, বীরেন্দ্র সেওয়াগদের এলিট লিস্টে নাম তোলার পর বেশিক্ষণ ক্রিজে টেকেননি এই ডান হাতি ব্যাটার। ১০৫ রান করা আইয়ারকে ফিরিয়েছেন সেই সাউদিই। অশ্বিনের ব্যাটিং প্রতিভা নিয়ে সন্দেহ থাকবার কথা নয়। এজাজ প্যাটেলের বলে বোল্ড হওয়ার আগে ৫৬ বলে গুরুত্বপূর্ণ ৩৮ রানের ইনিংস খেলেছেন অলরাউন্ডার। অক্ষর প্যাটেলের কাছ থেকে রানের প্রত্যাশা থাকলেও সেই আশা পূরণে ব্যর্থ। ভারতের ইনিংস শেষ হয় ৩৪৫ রানে।

কানপুর পিচের চরিত্রের কথা ভেবে তিনজন করে স্পিনার খেলিয়েছে দুই দলই। অথচ প্রথম ইনিংসে ভারতের আটটি উইকেট দখল করেছেন সাউদি – জেমিসন জুটি। ২৭.৪ ওভার বল করে মাত্র ৬৯ রান দেওয়া সাউদি নিজের ঝুলিতে পোরেন পাঁচ উইকেট। ভারতীয় টপ অর্ডারকে ধ্বসিয়ে দেওয়া জেমিসন আজ উইকেট পাননি। কিউয়ি স্পিনারদের মধ্যে একমাত্র সফল এজাজ প্যাটেল। ২৯.১ ওভার বল করে ২টি উইকেট পেয়েছেন তিনি।

নিউজিল্যান্ড ইনিংসের দুর্দান্ত সূচনা করেছেন টম ল্যাথাম – উইল ইয়ং জুটি। ইশান্ত, উমেশদের পাশাপাশি ভারতীয় স্পিন ত্রিফলাকেও দারুণ সামলেছেন ল্যাথামরা। দ্বিতীয় দিনে ৫৭ ওভার বল করেও কিউয়ি ওপেনার জুটিকে ক্রিজ থেকে টলাতে পারেননি ভারতীয় বোলাররা। দিনের শেষে অপরাজিত থেকে গিয়েছেন ইয়ং (১৮০ বলে ৭৫ রান) ও ল্যাথাম (১৬৫ বলে ৫০ রান)। ভারতের হাতে রয়েছে ২১৬ রানের লিড। তৃতীয় দিনের প্রথম সেশানে কিউয়ি জুটি ভাঙতে চাইবেন অজিঙ্কে রাহানে।