Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

ক্রিপ্টোকারেন্সিতে মানা! বিসিসিআইয়ের সিদ্ধান্তে নারাজ আইপিএল ফ্র‍্যাঞ্চাইজিগুলি

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

কোনওপ্রকার ক্রিপোটকারেন্সি সংস্থার সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধায় নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। বিসিসিআইয়ের এমন সিন্ধান্তে নারাজ বেশ কয়েকটি আইপিএল ফ্র‍্যাঞ্চাইজি। ২০২২ সালে কলেবর বাড়ছে বিশ্বের জনপ্রিয়তম টি-টোয়েন্টি লিগটির। স্বাভাবিক ভাবেই আইপিএল ফ্র‍্যাঞ্চাইজিগুলির টাইটেল, অ্যাসোসিয়েট স্পনসর হতে আগ্রহী বড়ো বড়ো সংস্থা যার মধ্যে রয়েছে বেশ কিছু নামী ক্রিপ্টোকারেন্সি এক্সচেঞ্জও।

ক্রিপ্টোকারেন্সি সংস্থার সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধার বিষয়ে কঠোর অবস্থান নিয়েছে বিসিসিআই। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের স্পষ্ট বক্তব্য ক্রিপ্টোসেক্টরের জন্যে প্রয়োজনীয় আইনি নিয়ন্ত্রণ না আসা অবধি কোনও চুক্তি সম্ভব নয়। বিসিসিআইয়ের তরফে আইপিএলের সম্প্রচারকারী সংস্থা স্টার ও ডিজনি-হটস্টারকেও এই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। উপরোক্ত দুই সংস্থাও ক্রিপ্টোকারেন্সি সেক্টরের সঙ্গে জড়িত প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি করতে পারবে না।

ক্ষুব্ধ আইপিএল ফ্র‍্যাঞ্চাইজি

ক্রিপ্টোকারেন্সি সংস্থাগুলির বিষয়ে বিসিসিআইয়ের অনড় অবস্থানে ভীষণই ক্ষুব্ধ আইপিএল ফ্র‍্যাঞ্চাইজিগুলি। একটি ওয়েবসাইটের প্রতিবেদন অনুযায়ী নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক দুটি আইপিএল ফ্র‍্যাঞ্চাইজি জানায় ভারতীয় বোর্ডের নিষেধাজ্ঞার কারণে তারা অর্থ উপার্জনের বড়ো সুযোগ হারাচ্ছে। ইকোনমিক টাইমসকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে একটি আইপিএল দলের পদস্থ কর্মকর্তা বলেন – ” আমরা একটা বড়ো সুযোগ হারাচ্ছি। একটি ক্রিপ্টোকারেন্সি সংস্থা টাইটেল স্পনসরশিপের জন্যে বর্তমান স্পনসরের দেড়গুন অর্থ দেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিল। আমাদের সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধে তারা নিজেদের ব্র‍্যান্ড নির্মান করবার পরিকল্পনা করেছিল। “

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সংস্থাও স্পনসর হিসাবে বা বিজ্ঞাপনের ক্ষেত্রে ক্রিপ্টোকারেন্সি সংস্থার অংশগ্রহণে আপত্তি জানায়নি। সেই প্রেক্ষিতে বিসিসিআইয়ের কঠোর অবস্থান নিয়ে অসন্তুষ্ট আইপিএল ফ্র‍্যাঞ্চাইজিগুলি। সদ্য সমাপ্ত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে কয়েনস্যুইচ, কয়েনডিসিএক্স, কুবেরের মতো সংস্থাগুলি বিজ্ঞাপন বাবদ ৫০ কোটি টাকার বেশি অর্থ খরচ করে।