Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

ঘরে বসেই ‘রোবটিক্স হ্যান্ড’ বানিয়ে তাক লাগালেন যুবক! লাভলুর আবিষ্কারে নেটদুনিয়ায় হইচই

।। প্রথম কলকাতা ।।

মাত্র ১৯ বছরের তরুণ জয় বড়ুয়া লাভলু । প্রত্যন্ত গ্রামে ঘরের কোনায় বসেই আবিষ্কার করে ফেলেছেন একের পর এক সব আশ্চর্য জিনিস। এককথায় হইচই পড়ে গেছে লাভলুর আবিষ্কার নিয়ে। এই তরুণ ঘরে বসেই বানিয়ে ফেলেছেন রোবটিক্স হ্যান্ড। এক রকম নয়, বেশ কয়েক রকম তার ছাড়াই এইরকম রোবট হাত বানিয়েছেন তিনি। প্রত্যেকটি কৃত্রিম হাতেই রয়েছে আশ্চর্য কিছু গুণ। এছাড়াও কৃষক এবং পুলিশদের জন্য আসছে তার নতুন আবিষ্কার।

এই কৃত্রিম হাতের আসল কাজটা কী ?

লাভলুর বানানো ওয়ারলেস হ্যান্ড বোমা নিষ্ক্রিয় করা কিংবা যেকোন ঝুঁকিপূর্ণ কাজের জন্য একেবারে উপযুক্ত। যাদের হাত জন্ম থেকেই নেই বা কোনো কারণে হাত কাজ করছে না তারাও এই লাভলুর বানানো রোবট হাত দিয়ে অনায়াসে সব কাজ করতে পারবে। এই রোবট হাতের সাথে রয়েছে সেন্সর, যা ব্যবহারকারী ব্যক্তির মস্তিষ্ক দ্বারাই পরিচালিত হবে।

এছাড়াও যাদের দুটি হাতই আছে অথচ কাজের জন্য তৃতীয় আরেকটি হাতের প্রয়োজন, তারাও লাভলুর তৈরি এই রোবট হাত ব্যবহার করতে পারেন। সে ক্ষেত্রে সেই হাতটি পরিচালনা করা যাবে পায়ের মাধ্যমে। পায়ে লাগানো থাকবে জুতোর মতো একটি রিমোট কন্ট্রোল।

• কৃষক এবং পুলিশের জন্য আশ্চর্য ছাতা

বাংলাদেশের চট্টগ্রামের হাটহজারি উপজেলার তরুণ লাভলুর কাণ্ডে রীতিমতো হতবাক হয়ে গেছেন অনেকেই। তার বানানো কৃত্রিম হাত মানুষের মস্তিষ্ক থেকে পাঠানো তথ্য অনুযায়ী কাজ করবে। এছাড়াও লাভলু এখনো ব্যস্ত কৃষক এবং পুলিশের জন্য এক বিশেষ ধরনের ছাতা তৈরি করতে। ছাতার মতো এই যন্ত্রে লাগানো থাকবে ব্যবহারকারীর পরিবারের কিংবা হাসপাতালের ফোন নম্বর।

কৃষক এবং পুলিশরা সাধারণত রোদ্দুরে সারাদিন কাজ করেন। তাদের গরম অনুভব হলেই ব্যবহারকারীর পিঠে লাগানোর ছাতাটি অটোমেটিক্যালি খুলে যাবে। যদি ব্যবহারকারী দুর্বল অনুভব করে তাহলে সেই বার্তা পৌঁছে যাবে নিকটস্থ হাসপাতাল কিংবা পরিবারের সদস্যদের কাছে। লাভলুর এই অসাধ্য সাধন কাজে প্রয়োজন শুধু একটু প্রাতিষ্ঠানিক স্বীকৃতি এবং সহযোগিতা।

আপডেট থাকতে ফলো করুন আমাদের ইউটিউব , ফেসবুক, ট্যুইটার

সব খবর সবার আগে, আমরা খবরে প্রথম