Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

মা কালীর ছবি দিয়ে আপত্তিকর পোস্ট! ট্যুইটারকে কড়া জবাব দিল্লি হাইকোর্টের

1 min read

।।প্রথম কলকাতা।।

শুক্রবার দিল্লি হাইকোর্ট শুক্রবার ট্যুইটারকে তার প্ল্যাটফর্ম থেকে হিন্দু দেব-দেবী সম্পর্কিত কিছু আপত্তিকর পোস্ট মুছে ফেলতে বলেছে। হাইকোর্টের পর্যবেক্ষণ, সোশ্যাল মিডিয়া জায়ান্টদের উচিত সাধারণ জনগণের অনুভূতিকে সম্মান করা। কারণ তারা এদেশে ব্যবসা করছে। দিল্লি হাইকোর্টের বেঞ্চ বলেছে, ‍‘ট্যুইটার একটি ভাল কাজ করছে এবং লোকেরা এতে খুশি। তবে তাদের আপত্তিকর জিনিসগুলি সরিয়ে দেওয়া উচিত।’ আর এই নিয়ে আদালত ট্যুইটারের আইনজীবীকে প্রশ্নও করেছে। জিজ্ঞাসা করেছিলেন। প্রধান বিচারপতি ডি এন প্যাটেল ও জ্যোতি সিংয়ের একটি বেঞ্চ এদিন ট্যুইটারের প্রতিনিধির উদ্দেশে বলে, ‍‘আপনার উচতি সাধারণ জনগণের অনুভূতিকে সম্মান করা। কারণ আপনি জনসাধারণের জন্য একটি বড় আকারের ব্যবসা করছেন।

আপনাদের উচিত তাঁদের অনুভূতিকে যথাযথ গুরুত্ব দেওয়া। কেন আপনার এই ধরনের কাজ করছেন? আপনাদের এটি অপসারণ করা উচিত। এটি সরিয়ে ফেলুন।’ এ প্রসঙ্গে বেঞ্চ আরও বলে, ‍‘আপনারা রাহুল গান্ধীর ক্ষেত্রেও এটি করেছেন।’ ট্যুইটারের প্রতিনিধি সিনিয়র অ্যাডভোকেট সিদ্ধার্থ লুথরা বলেছেন, আদালতের নির্দেশ তারা মেনে চলবে। আগামী ৩০ নভেম্বর মামলাটি পরবর্তী শুনানির দিন ঘোষণা জন্য রেখেছে আদালত। এদিকে, পিটিশনকারী আদিত্য সিং দেশওয়াল বলেছেন, তিনি ‍‘@অ্যাথেইস্ট রিপাবলিক’ নামের একজন ব্যবহারকারীর দ্বারা মা কালী সম্পর্কে কিছু অত্যন্ত আপত্তিকর পোস্ট দেখেছেন যেখানে, দেবতাকে একটি অপমানজনক এবং আপত্তিজনকভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে। আবেদনকারী সিনিয়র অ্যাডভোকেট সঞ্জয় পোদ্দারের মাধ্যমে প্রতিনিধিত্ব করেছেন।

অ্যাডভোকেট পোদ্দার ট্যুইটারের গ্রিভেন্স অফিসারকে এই নিয়ে জানিয়ে বলেছেন, পোস্টটি তথ্য প্রযুক্তি (ইন্টারমিডিয়ারি গাইডলাইনস এবং ডিজিটাল মিডিয়া এথিক্স কোড) বিধিমালা, ২০২১-কে গুরুতর লঙ্ঘন করেছে। এর ফলে টুইটার তথ্য প্রযুক্তি আইনের অধীনে দেওয়া আইনি অনাক্রম্যতা হারাতে বাধ্য হবে। সেই সঙ্গে তাঁর দাবি, ট্যুইটার পোস্ট মুছে দিতে প্রত্যাখ্যান করে জানিয়েছে যে ,অ্যাকাউন্টের বিষয়বস্তু এমন একটি বিভাগের নয়, যার জন্য কোনও পদক্ষেপ নিয়ে এটি সরানো যাবে না। পিটিশনে ট্যুইটারকে তার প্ল্যাটফর্ম থেকে আপত্তিকর বিষয়বস্তু মুছে ফেলার নির্দেশ দিতে বলা হয়েছিল এবং সংশ্লিষ্ট ব্যবহৃত অ্যাকাউন্টটি স্থায়ীভাবে স্থগিত করার কথা উল্লেখ করা হয়েছিল।

News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন প্রথম কলকাতা অ্যাপ