Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

শিক্ষক নিয়োগের দাবিতে ফের অনির্দিষ্টকালীন গণ অবস্থান ছাত্র অধিকার মঞ্চের

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

ফের একবার নিয়োগের দাবিতে কলকাতায় গণ অবস্থান কর্মসূচির উদ্যোগ নিল যুব ছাত্র অধিকার মঞ্চ। দীর্ঘ পাঁচ বছর অতিক্রান্ত হয়ে গেলেও মেধাতালিকায় নাম থাকা পরীক্ষার্থীদের নিয়োগ হয়নি এই দাবিতে অনির্দিষ্টকালীন অবস্থান গ্রহণ করল পরীক্ষার্থীরা। তাঁদের দাবি, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হস্তক্ষেপের মাধ্যমে দ্রুত নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু হোক। আন্দোলনকারীদের অভিযোগ, ২০১৬ সালে নবম- দ্বাদশ স্তরের শিক্ষক নিয়োগের জন্য এসএলএসটি (SLST) পরীক্ষার আয়োজন করেছিল পশ্চিমবঙ্গ স্কুল সার্ভিস কমিশন।

২০১৭ সালে প্রকাশিত মেধাতালিকায় নাম থাকা সত্ত্বেও নিয়োগ সম্পন্ন হয়নি। এর প্রতিবাদে তাঁরা ২০১৯ সালে কলকাতার প্রেসক্লাবের সামনে ঊনত্রিশ দিন ব্যাপী অনশন করেন। সে সময় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং তৎকালীন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় সেখানে আসেন এবং সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশানুসারে পাঁচ সদস্যের কমিটি গঠনের আশ্বাস দেন। তথাপি সমস্যার সমাধান হয় না। এরপর তাঁরা প্রায় ছয়মাসের অবস্থান বিক্ষোভ করেন। সেক্ষেত্রেও কোনো আশানুরূপ ফল মেলে না।

এবার হাইকোর্টের অনুমতি নিয়ে চলতি মাসের ৮ তারিখ থেকে গান্ধীমূর্তির পাদদেশে অবস্থান বিক্ষোভে বসেছেন এসএলএসটি পরীক্ষার্থীরা। এখন দাবি একটাই দাবি, মুখ্যমন্ত্রী বিষয়টির দিকে নজর দিন এবং সমস্যার আশু সমাধান করুন। তাঁদের দাবি না মানা হলে পরবর্তী ক্ষেত্রে তাঁরা বৃহত্তর আন্দোলনের দিকে যাবেন বলেও হুঁশিয়ারি দেন। পাশাপাশি, তাঁরা আরও অভিযোগ করেছেন, মেধা তালিকা একেবারেই দুর্নীতি মুক্ত নয়। তাছাড়া এই মুহূর্তে অনেক শূণ্যপদ খালি থাকা সত্ত্বেও কেন নিয়োগ করা হচ্ছে না এ বিষয়েরও তাঁরা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

যুব ছাত্র অধিকার মঞ্চের স্টেট কর্ডিনেটর সুদীপ মন্ডল জানিয়েছেন, “মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীর ওপর আমাদের ভরসা আছে। আমরা চাই তিনি দ্রুত আমাদের সমস্যার সমাধান করুন। অনেক পরীক্ষার্থীই আছেন যাঁদের পারিবারিক আর্থিক অবস্থা অত্যন্ত শোচনীয়। পাঁচ বছর ইতিমধ্যেই কেটে গেছে। আমরা চাই মুখ্যমন্ত্রী যে কথা দিয়েছিলেন তা পূরণ করুন।“

News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন প্রথম কলকাতা অ্যাপ