Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

তৃণমূল মানে মন্দির-মসজিদ-গীর্জা! গোয়ায় ধর্মনিরপেক্ষতার বার্তা মমতা

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

উত্তরবঙ্গ সফর সেরে সরাসরি তিনদিনের গোয়া সফরে গিয়েছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আজ সেখানে তাঁর একাধিক রাজনৈতিক কর্মসূচি রয়েছে। যাবেন মন্দির দর্শনেও। তার আগেই সমুদ্রনগরীতে তৃণমূলের নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠক করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর প্রথম দিনেই গোয়ার সংস্কৃতির সাথে বাংলার সংস্কৃতিকে মিশিয়ে দিয়ে তিনি বললেন গোয়ানিজ মিউজিক তাঁর ভীষণ প্রিয়। আজকের দলীর বৈঠকে বিশেষভাবে অসাম্প্রদায়িকত্বের বার্তা দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বললেন, “তৃণমূল কংগ্রেস জাতীয় দল। তৃণমূল মানে মন্দির-মসজিদ-গীর্জা। আমাদেরকে একটা সুযোগ দিন আমরা বিজেপির সাথে আপস করব না।”

রাজনৈতিক ভাবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় স্পষ্ট করে দিতে চাইলেন তিনি গোয়ায় বহিরাগত নন। বিজেপিকে কটাক্ষ করে বললেন, “আমাকে বিজেপি বলে আমি নাকি অ্যান্টি হিন্দু। কিন্তু বাংলায় গিয়ে দেখুন সেখানে সবাই একসাথে ভালো আছে। তৃণমূল সকলের জন্য কাজ করে। আর আমি গর্বের সাথেই বলি যে, আমি হিন্দু! আপনারা আমার ক্যারেক্টার সার্টিফিকেট দেবেন? আপনারা কে? কারুর সাথে আমার কোনো বিরোধ নেই। আমি মরে যেতে পারি কিন্তু দেশকে বিভাজিত হতে দেব না।“

মমতা গোয়ায় পা রাখার পরেই বেশ কিছু বিজেপি কর্মী সমর্থক তাঁকে কালো পতাকা দেখান। আজ তার জবাব দিয়ে মমতা বলেন, “বিজেপির লোক আমাকে কালো পতাকা দেখিয়ে স্বাগত জানিয়েছে। আমি তাঁদের পাল্টা নমস্তে জানিয়েছি। গোয়ার মানুষ আপনাদের খুব শীঘ্রই ব্ল্যাক লিস্টে ফেলবে! তৃণমূল কংগ্রেসকে দমিয়ে রাখা যাবে না। আমরা বিজেপির কাছে আমাদের দল বিক্রি করব না। আমরা গণতন্ত্রে বিশ্বাসী। আমাদের পার্টি বিক্রি হওয়ার নয়, সাইনবোর্ড হওয়ার জন্য গোয়ায় আসিনি।“

মমতা আজ স্মরণ করান তিনি বছর দশেক আগে রেলমন্ত্রী থাকাকালীন গোয়া এসেছিলেন। এরপর আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব উদ্বোধন করতেও তিনি গোয়া আসেন। আজ দলীয় নেতৃত্বের সাথে বৈঠকের পর তিনি জানান গোয়ার সাথে কলকাতার দূরত্ব মাত্র ২ ঘন্টার। আগামীতেও তিনি এখানে আসবেন বলে কথা দেন।

News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন প্রথম কলকাতা অ্যাপ