Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

বিশ্বজুড়ে ভুয়ো তথ্য, দাঙ্গার জন্য দায়ি ফেসবুক, অভিযোগ সংস্থার প্রাক্তন কর্মচারীর

1 min read

। । প্রথম কলকাতা । ।

বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন দেশ বিভিন্ন ধর্ম, জাতির মধ্যে যে ভুয়ো তথ্য সম্প্রচার এবং অশান্তি সৃষ্টি হয়েছে তার জন্য দায়ি আর কেউ নয়, খোদ ফেসবুক। সংস্থার বিরুদ্ধে এমনই চাঞ্চল্যকর অভিযোগ আনলেন ফেসবুকের প্রাক্তন কর্মচারী ফ্রান্সিস হাউজেন। ২০১৮ সালে তিনি ফেসবুকের সিভিক ইন্টিগ্রিটি ডিপার্টমেনন্টের প্রোডাক্ট ম্যানেজার হিসাবে যোগ দেন। তার অভিযোগ ২০২০ সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনের সময় যে ভুয়ো তথ্য এবং প্ররোচনামূলক মন্তব্য ফেসবুকের মাধ্যমে শেয়ার হয়েছে তার বিরুদ্ধে কোনো পদক্ষেপই নেয়নি এই সংস্থা। এমনকি তার দাবি, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে শিশু নির্যাতন নিয়ে যে ভুয়ো তথ্য সম্পচারিত হয়েছে তার বিরুদ্ধেও কোনো তৎপরতা দেখায়নি ফেসবুক।

সোশ্যাল মিডিয়ায় অশান্তি রুখতে ফেসবুকের এমন নমনীয়তা দেখে সংস্থা ছাড়ার সিদ্ধান্ত নেন ফ্রান্সিস। তবে পদত্যাগ করার সময় ফেসবুকের অভ্যন্তরীণ বিভিন্ন ফাইল নিজের কাছে কপি করে নেন তিনি। সিদ্ধান্ত নেন ফেসবুকের এইসব সংবেদনশীল তথ্য জনসমক্ষে আনার, যা বর্তমানে ‘ফেসবুক পেপার্স’ নামে পরিচিত।

দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ইতিমধ্যে ভারতের তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রক ফ্রান্সিস হাউজেনের দাবি করা ফেসবুক পেপার্সে ভারতের সাথে সম্পর্কিত বিভিন্ন তথ্য মজুত করে একটি রিপোর্ট তৈরি করতে চলেছে। ফ্রান্সিস হাউজেনের দাবি ফেসবুকের অ্যালগরিথম ঠিক নয়। এটি ফেসবুকে বিভিন্ন কট্টরপন্থী গ্রূপ এবং ভুয়ো তথ্যকে পরোক্ষভাবে সমর্থন করে। ফ্রান্সিস হাউজেনের এমন অভিযোগের পর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল সহ ১৭ টি সংবাদমাধ্যম এই বিষয়ে তদন্ত শুরু করে দিয়েছে ইতিমধ্যে।সূত্রের খবর, ভারতের সাথে সম্পর্কিত কোনো প্রমাণ পেলে তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রকের তরফে ফেসবুকের এক্সিকিউটিভদের তলব করা হতে পারে।

News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন প্রথম কলকাতা অ্যাপ