Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

বাবার কফিনের সামনে হাস্যমুখে ফটোশ্যুট মডেলের! নিন্দার ঝড় সোশ্যাল মিডিয়ায়

1 min read

।।সৌম্য বাগচী।।

নিজের বাবা-মার মৃত্যু থেকে শোকের আবহ আর কিছু হতে পারে না। এরকম স্বজন হারার ঘটনায় যে কোনও ব্যক্তি শোকে পাথর হয়ে যান সাধারণত। কিন্তু এর উল্টোটাই ঘটল এবার। ফ্লোরিডা-ভিত্তিক ফিটনেস মডেল ইনস্টাগ্রামে বেশ কয়েকটি ছবি শেয়ার করেছেন, যেখানে তাঁকে দেখা যাচ্ছে বাবার কফিনের সামনে পোজ দিয়ে দাঁড়িয়ে আছেন। এরপর সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রবল সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে তাঁকে।ফ্লোরিডা-ভিত্তিক ফিটনেস মডেল জেইন রিভারার এই পোস্টের পরে তাঁর বিরুদ্ধে সমাবেশ করেছেন সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারীরা। সেই সঙ্গে তাঁরা এই মডেলের পোস্টের মন্তব্য বিভাগে বাবার কফিনের সামনে পোজ দেওয়ার বিষয়টিকে কাজটিকে ‍‘অসুস্থ’ এবং ‍‘ঘৃণ্য’ হিসাবে বর্ণনা করেছেন। এরপরই অবশ্য ইনস্টাগ্রাম থেকে ছবিগুলো মুছে ফেলা হয়।

গত সপ্তাহে জেইন রিভেরা পোস্ট করেছিলেন যে তাঁর বাবা মারা গিয়েছেন। এর আগে, সোমবার, জেইন তাঁর একটি কফিনের সামনে নিজের পোজ দেওয়ার বেশ কয়েকটি ছবি শেয়ার করেছিলেন। ছবিগুলো কিছু সময়ের মধ্যে ভাইরাল হয়ে যায় কিন্তু সব ভুল কারণে। ছবিতে দেখা যায়, জেইন হাসি মুখে একটি কালো স্যুট পরা অবস্থায় কফিনের সামনে দাঁড়িয়ে রয়েছেন। এই ছবির সঙ্গে তিনি পোস্ট করেন, ‍‘প্রজাপতি উড়ে যায়। রিপ পাপিষ তুমি আমার সবচেয়ে ভাল বন্ধু ছিলে। একটি জীবন ভালভাবে বেঁচে ছিল।’ জেইন রিভেরার পোস্টটি ‍‘অসম্মানজনক’ ছিল মন্তব্য করার পাশাপশি সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে ক্ষোভ উপচে ওঠে। যদিও জেইন তাঁর পোস্টটি সরিয়ে দিয়েছেন কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারীরা এটির স্ক্রিনশট নিয়ে এবং ট্যুইটারে শেয়ার করেছেন। এই মডেলের পোস্টের মন্তব্য থেকে এটা স্পষ্ট যে নেটিজেনরা জেন যে ছবিগুলি শেয়ার করেছেন তার বিরুদ্ধাচারণই করেছেন।

জেইনের ছবি নিয়ে একের পর এক পোস্ট আসতে শুরু করে। একজন লেখেন, ‍‘নট কুল জেইন, তোমার বাবা একজন সজ্জন পশুচিকিত্সক ছিলেন, তার কফিনের সঙ্গে এরকম ছবি তোলা আপনার উচিত হয়নি। অপর একজন সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম ব্যবহারকারী লিখেছেন, ‍‘তিনি অনন্ত শান্তিতে বিশ্রাম করুন।’ আরেক জন লিখেছেন, ‍‘অপরাধী এবং ঘৃণ্য! আপনি এইরকম কিছু পোস্ট করে আপনার রুচি সম্পর্কে প্রশ্ন তুলে দিয়েছেন। আপনার সম্পর্কে জা জানার আমাদের জানা হয়ে গিয়েছে।’ জেইনের এক ভক্ত ক্ষিপ্ত হয়ে লিখেছেন, ‘জেইন, এই ছবিগুলি মুছুন, আপনার বিচক্ষণতার অভাবের জন্য ক্ষমাপ্রার্থী নতুবা আমি আপনাকে অনুসরণ করা বন্ধ করে দেব এবং আমি আশা করি অন্যরাও একই কাজ করবে।’ অপর একজন ক্রুদ্ধ ভক্ত লিখেছেন, ‍‘আমি এটি অতিক্রম করতে পারি না।’ বেশ কিছু ব্যবহারকারী জেইনকেও আনফলো করেছেন। উল্লেখ্য ‍‘অন্ত্যেষ্টি ক্রিয়া ফটোশুট’-এর আগে, ইনস্টাগ্রামে ৮৪,০০০ এর বেশি ফলোয়ার ছিল জেইনের। তিনি একজন টিকটক তারকা। যেখানে তাঁর তিন লক্ষেরও বেশি ফলোয়ার রয়েছেন।

News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন প্রথম কলকাতা অ্যাপ