Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

বাজি পোড়াতে গিয়ে হাত পুড়িয়েছেন! দ্রুত স্বস্তি পেতে যা যা করবেন

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

সামনেই আসছে কালী পুজো। আর বছরের এই একটা দিনেই চারদিক মেতে ওঠে আলোর উৎসবে। সাথে থাকে আতস বাজি, শব্দ বাজির সমাহার। কিন্তু এর মাঝেই লুকিয়ে থাকে আতঙ্ক ভয়। হাজারো সাবধানতার মাঝেই ঘটতে পারে পুড়ে যাওয়ার মতো দুর্ঘটনা। তাই সময় মতো নিজেকে সুরক্ষিত রাখতে আগে থেকেই জানতে হবে প্রাথমিক কিছু ঘরোয়া উপায়।

জেনে নিন বাজি পোড়ানোর আগে কী কী সাবধানতা অবলম্বন করবেন-

১. কালী পুজোয় যেকোনো দুর্ঘটনা এড়াতে সুতির ঢিলে ঢালা পোশাক পড়ুন। যা সহজেই খুলে ফেলা যায়। শাড়ি পড়লে আঁচল ভালো করে গুঁজে নিন। ওড়না সাবধানে রাখুন।

২. কোনো ভাবে হাতে বা শরীরের যেকোনো অংশে আগুন লাগলে সেখানে সঙ্গে সঙ্গে জল ঢালুন। কম্বল বা মোটা কাপড় চাপা দেবেন না।

৩. এছাড়াও খালি পায়ে বাজি পড়াবেন না। বাজি পোড়ানোর সময় এক বালতি জল সাথে রাখুন। পোড়ানো তুবড়ি বা তারা বাতি যেখানে সেখানে না ফেলে একটি নির্দিষ্ট স্থানে রাখুন কিংবা এক বালতি জলে রাখুন।

অগত্যা হাত পা বাজির আগুনে পুড়ে গেলে কী কী করবেন-

১. চিকিৎসকদের মতে বাজি পোড়াতে গিয়ে শরীরের কোনো অংশ পুড়ে গেলে ক্ষত স্থানে প্রচুর পরিমানে ঠান্ডা জল দিন। তারপর বরফ লাগান। তবে একদম পোড়া স্থানে নয়। ক্ষতর চারপাশে বরফ ঘসুন জ্বালা ভাব কমা পর্যন্ত।

২. হাতের কাছে মজুত রাখুন সিলভার সালফা ডায়োজিন বা ন্যানো সালফার জাতীয় মলম। অল্প স্বল্প পুড়লে ক্ষত স্থানে কিছুক্ষন ঠান্ডা জল দেওয়ার পর সুতির কাপড় দিয়ে আলতো করে মুছে মলম লাগিয়ে নিন। ভুলেও ঘোষবেন না এবং মলম লাগানোর পর তার ওপর ভেসলিন লাগাতে পারেন।

৩. পোড়া জায়গায় ব্যাথা হলে প্যারাসিটামল জাতীয় ওষুধ খান। পোড়া জায়গা ভালোভাবে না শুকানো পর্যন্ত কোনোরকম ক্রিম বা সাবান ব্যবহার করবেন না।

৪. অনেকসময় চোখে আগুনের ফুলকি ঢুকে যায়। সেক্ষেত্রে চোখে কোনোরকম ঘষাঘষি না করে ঠান্ডা জলের ঝাপটা দিন। প্রয়োজনে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে পারেন।

৫. বাজির ধোঁয়া কোনো ভাবে নাকে মুখে ঢুকে গেলে হাঁপানি বা শ্বাসকষ্টের সমস্যা হতে পারে। সেক্ষেত্রে ফাঁকা জায়গায় এসে প্রাণ খুলে নিশ্বাস নিন প্রয়োজনে অক্সিজেন নেওয়ার ব্যবস্থাও করতে পারেন।

News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন প্রথম কলকাতা অ্যাপ