Prothom Kolkata

Popular Bangla News Website

মমতার হাল হতে পারে মুলায়মের মতো, কেন?

1 min read

।। প্রথম কলকাতা ।।

প্রধানমন্ত্রী হওয়ার স্বপ্নে হিল্লি দিল্লী করে বেড়াচ্ছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ কখনও দিল্লি, তো কখনও গোয়া৷ এবার তিনি উত্তরপ্রদেশেও যেতে চান এমনটা নিজের মুখেই জানিয়ে দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ লক্ষ্য সেই একটাই জাতীয় স্তরে নিজের হাতে গড়া তৃণমূল কংগ্রেসের বিস্তার ঘটানো৷ আর এই কাজে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঠিক পরেই রয়েছেন তাঁর ভাইপো অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়৷ জাতীয় রাজনীতিতে অভিষেকের অভিষেক ঘটাতে চেয়ে তাকে বড়সড় পদ দিয়েছেন তৃণমূল সুপ্রিমো৷ সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক৷ অভিষেকও বোঝাচ্ছেন তিনি তাঁর পিসিকে প্রধানমন্ত্রী করার জন্য জানপ্রাণ লড়িয়ে দেবেন৷ কিন্তু তাতে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের লাভটা কী?

প্রথম কলকাতার রাজনীতিপ্রিয় দর্শকদের অনেকের মনেই এর উত্তরটা ঘোরাফেরা করে কিন্তু সেই ভাবনায় তো সিলমোহর দরকার৷ সিলমোহরটা দিয়ে দিচ্ছে ভারতীয় জনতা পার্টি৷ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় যে কত বড় অভিসন্ধি কষে রেখেছেন৷ সেটা বিজেপি বুঝে ফেলেছে এবং খুব শীঘ্রই সেটা বাংলার জনতার সামনে তুলেও ধরবেন তারা৷ কী সেই চাল? মমতাকে জাতীয় রাজনীতিতে জায়গা করে দিতে এত তত্পর কেন অভিষেক? প্রথম কলকাতা বলছে ইতিহাসেও দেশের মানুষ সাক্ষী হয়েছেন এমন ঘটনার৷ আর আজ এই রাজনৈতিক অভিসন্ধির ওপর থেকে পর্দা তোলার সময় হয়েছে?

তারা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন মোদীর গড় বারাণসীতে৷ তৃণমূল নেত্রীও উচ্ছ্বসিত৷ এদিকে রাজ্যে ৪ কেন্দ্রের উপনির্বাচনে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় গলা ফাটিয়ে প্রচার করছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দিল্লিতে পাঠাতে হবে৷ সেই লড়াই বাংলা থেকেই শুরু হয়ে গিয়েছে৷ রানৈতিক পর্যবেক্ষকেরা আগেও বলেছেন ও এখনও বলছেন এটা শুধুমাত্র হাইপ তোলার একটা বড় চেষ্টা, আরেকটা চেষ্টা তৃণমূল করছে খুব ইনটেনশনালি সেটা হল জাতীয় কংগ্রেসকে আরও দুর্বল করে দেওয়ার৷ সেটাও মমতার দলের একের পর এক মুভে খুবই পরিস্কার৷ এবার আসি তৃণমূল কংগ্রেসের কোনআনকোট যুবরাজ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় কথায়৷ তিনি তৃণমূল কংগ্রেসকে ঠিক কোন পথে নিয়ে যেতে চাইছে নজর রাখা যাক সেদিকে৷

পিসি-ভাইপোর কোন্দল আসন্ন

আজকের প্রতিবেদনের ভূমিকায় যে কথাটা বলছিলাম কোনওরকম সম্ভাবনা ছাড়া, কোনও অঙ্ক ছাড়াই মমতাকে প্রধানমন্ত্রীর মুখ হিসেবে দাঁড় করানোর যে প্রচেষ্টা করছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় তাতে তার এগজ্যাক্টলি লাভটা কি? আর বিজেপিই বা এমন কোন রহস্যের সন্ধান পেল এইখানে৷ রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে এব্যাপারে দীর্ঘ আলোচনার পর যেটা বোঝা যাচ্ছে, সেই সম্ভাবনা উঠে আসছে সেটা হল অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় চান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে জাতীয় রাজনীতির দিকে ঠেলে দিতে যাতে বাংলার তৈরি হয় একটা ভ্যাকেন্ট জায়গা৷ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জাতীয় স্তরে আরও প্রমিনেন্টভাবে যদি উঠে আসতে হয় তাহলে সেই লড়াইয়ের গতিপথ একেবারে অন্য৷ তৃণমূল নেত্রীকে অনেক বেশি কনসনট্রেট করতে হবে দিল্লি রাজনীতিতে৷ অনেক বেশি আনাগোনা সেখানে থাকতে হবে তাঁর৷ কারণ এখন এমন বহু রাজ্য রয়েছে যেখানকার মানুষ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজনৈতিক দক্ষতা সম্পর্কে অনেকটাই ধোঁয়াশায়৷

জাতীয় স্তরে বিস্তার বা পরিসর বাড়াতে হলে দু নৌকায় পা দিয়ে চললে হবে না এমনটাই দাবি করছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকেরা৷ আর এটা করতে গিয়ে বাংলায় প্রশাসকের ভূমিকার যদি একটা শূন্যস্থান তৈরি হয় সেখানেই বসার চেষ্টা করবেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়৷ এই একই দাবিটা সম্প্রতি করেছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার৷ তিনি ঠিক কী বলেছিলেন সেটা কোট করব৷ মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিকে দিল্লির মসনদে পাঠানো নিয়ে হইচইয়ের নেপথ্যে আসলে রয়েছে অভিষেক ব্যানার্জির রাজ্যের গদিতে বসার স্বপ্ন যতটা না পিসিকে দিল্লি পাঠানোর ইচ্ছে, তার থেকে বেশি নিজের এই রাজ্যের ক্ষমতায় বসার ইচ্ছে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর চেয়ার নিয়ে পিসি-ভাইপোর মধ্যে লড়াই শুধু সময়ের অপেক্ষা । এর মানেটা বুঝতে পারছেন তো ঘুরিয়ে ফিরিয়ে কিন্তু এক জায়গায় এসেই কাঁটাটা…

News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন প্রথম কলকাতা অ্যাপ